৬ই ফেব্রুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বই উৎসবে শিক্ষার্থীদের উচ্ছ্বাস
বই উৎসবে শিক্ষার্থীদের উচ্ছ্বাস
95 বার পঠিত

সমাজের কথা ডেস্ক : সারাদেশের সাথে দক্ষীণ-পশ্চিমজুড়ে খুলনা বিভাগের দশ জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বছরের প্রথম দিনই বই উৎসব উদযাপিত হয়েছে। সরকারের দেওয়া নতুন বই বই উৎসবে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়ার মাধ্যমে এই বই উৎসব আনন্দমুখর ও উৎসবের প্রাণ পায়। শিড়্গক, শিড়্গার্থী, অভিভাবক ও আগত অতিথিরা উৎসবে শরীক হয়ে প্রতিটি বিদ্যালয়কে আরও উৎসবময় ও প্রাণবšত্ম করে তোলেন। বছরের প্রথম দিন নতুন বইয়ের গন্ধে মুগ্ধ হয় শিড়্গার্থীরা। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যে ডেস্ক রিপোর্ট :


ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানান: ঝিনাইদহ পৌর মডেল স্কুল এন্ড কলেজে বই উৎসব হয়েছে। রোববার দুপুরে কলেজের সভাপতি পৌর মেয়র কাইয়ুম শাহরিয়ার জাহেদী হিজলের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) রথীন্দ্রনাথ রায়। সেসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর সভার নির্বাহী কর্মকর্তা নূর মাহমুদ, কলেজের অধ্যড়্গ শাহানাজ পারভীনসহ অন্যান্য শিক্ষক-কর্মচারী।


মোংলা প্রতিনিধি জানান, বছরের প্রথম দিনেই মোংলা উপজেলার প্রতিটি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে আনন্দমুখর পরিবেশে বই বিতরণ উৎসব পালন করা হয়েছে। রোববার সরকারি টি এ ফারম্নক স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে বই উৎসবরে উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ পরিবেশ, বন ও জলবায়ু উপমন্ত্রী বেগম হাববিুন নাহার এমপি। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে, মোংলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, মোংলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপংকর দাশ, মোংলা থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মনিরম্নল ইসলাম, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এস এ আনোয়ার উল কুদ্দুস, কলেজের অধ্যাক্ষ আবু সাঈদ খাঁন, পৌর আওয়ালীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরম্নজ্জামান জসিম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ইস্রাফীল হাওলাদারসহ প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।


এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় মোংলা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় ও সেন্ট পলস উচ্চ বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ে বই বিতরণ উৎসবে প্রধান অতিথি। জানাগেছে, উপজেলায় ২৮টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১৩টি দাখিল মাদ্রাসা ও ১০টি ইবতেদায়ি মাদ্রাসায় ১৫ হাজার ৪৭০ জন ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে ১লাখ ৪৫ হাজার ৬৫০টি বই বিতরণ করা হয়েছে।

চৌগাছা প্রতিনিধি জানান,যশোরের চৌগাছায় বই উৎসব পালিত হয়েছে। উপজেলার ১৪২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৪৬টি মাধ্যমিক ও নি¤্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ২১টি দাখিল, আলিম ও কামিল মাদরাসা, কয়েকটি এবতেদায়ী মাদরাসা ছাড়াও ইসলামী ফাউন্ডেশনের প্রায় ৪০টি প্রাক প্রাথমিক শিড়্গা কেন্দ্রে এই বই বিতরণ উৎসব পালিত হয়।
রোববার বেলা সাড়ে ১২টায় পৌর এলাকার মডেল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বই বিতরণ উৎসবের আয়োজন করা হয়। এ উপলড়্গে আলোচনা সভায় চৌগাছার সহকারী কমিশনার (ভূমি) গুঞ্জন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যড়্গ ড. মো¯ত্মানিছুর রহমান। বিদ্যালয়ের সহকারী শিড়্গক মামুন শামীম আক্তার লিখনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা প্রাথমিক শিড়্গা কর্মকর্তা মো¯ত্মাফিজুর রহমান। এসময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের ইন্সট্রাক্টর রোকনুজ্জামান খান, ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপজেলা সুপারভাইজার আব্দুল মালেক ও সহকারী শিড়্গা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম। এছাড়া বিদ্যালয়ের প্রধান শিড়্গক নাসির উদ্দিনসহ সহকারী শিড়্গকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পরে একই স্থানে ইসলামী ফাউন্ডেশনের প্রাক প্রাথমিক শিড়্গা কেন্দ্রর কয়েকজন শিড়্গার্থীকে বই প্রদানের মাধ্যমে শিখনকেন্দ্রগুলির বই প্রদান উৎসবের উদ্বোধন করা হয়।


এর আগে বেলা ১১টা শহরের সরকারি শাহাদৎ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিড়্গার্থীদের বই প্রদানের মাধ্যমে মাধ্যমিক শিড়্গার্থীদের বই উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। এ উপলড়্গে সংড়্গপ্তি অনুষ্ঠানে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) গুঞ্জন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যড়্গ ড. মো¯ত্মানিছুর রহমান। একই সময়ে উপজেলার সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দাখিল, আলিম ও কামিল মাদরাসা, এবতেদায়ী মাদরাসায় বই বিতরণ উৎসবের শুরম্ন করা হয়।


উপজেলা প্রাথমিক শিড়্গা কর্মকর্তা মো¯ত্মাফিজুর রহমান জানান, উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১ম ও ২য় শ্রেণির সকল শিড়্গার্থীদের সবকটি বই এবং ৩য়, ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণির সকল শিড়্গার্থীকে দুটি করে বই এদিন প্রদান করা হয়েছে।


কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি জানান, কেশবপুর উপজেলায় উৎসবমুখর পরিবেশে বই উৎসব হয়েছে। বছরের শুরম্নর দিন আলতাপোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে প্রধান অতিথি হিসেবে বই বিতরণ উৎসবের উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি পৌর কাউন্সিলর বি এম শহিদুজ্জামান শহীদের সভাপতিত্বে ও প্রধান শিক্ষক নাজমুল হুদা বাবুর সঞ্চালনায় বিনামূল্যে বই বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা শিক্ষা অফিসার শোভা রায়, উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের ইন্সট্রাক্টর রবিউল ইসলাম ও উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার আনিসুর রহমান।


আশাশুনি(সাতড়্গীরা) প্রতিনিধি জানান, আশাশুনিতে উৎসবমুখর পরিবেশে পাঠ্য পু¯ত্মক উৎসব দিবস পালিত হয়েছে। বছরের প্রথম দিনে আশাশুনি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে এ উৎসব পালিত হয়। প্রধান শিক্ষক আশরাফুন্নাহার নার্গিসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবিএম মো¯ত্মাকিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইয়ানুর রহমান, আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ মো. মমিনুল ইসলাম, শিক্ষা অফিসার রফিকুল ইসলাম, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল হান্নান। অনুরূপভাবে উপজেলা মডেল সকরারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসব পালিত হয়। শিক্ষা অফিসার গাজী সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিড়্গক নিরঞ্জন কুমার মন্ডল, সহকারী শিড়্গক শরিফুল ইসলাম প্রমুখ। এ ছাড়া উপজেলার প্রত্যেকটি স্ব-স্ব স্কুল, মাদ্রাসায় বই বিতরণ উৎসব পালিত হয়েছে।

কপিলমুনি প্রতিনিধি জানান, রোববার সকালে কপিলমুনিসহ পার্শ্ববর্তী বিদ্যালয়গুলির মাঠে বই উৎসব হয়েছে। কপিলমুনি সহচরী বিদ্যা মন্দির, মেহেরম্নন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আগড়ঘাটা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কপিলমুনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আগড়ঘাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পৃথক পৃথক ভাবে বই উৎসবের আয়োজন করে। স্থানীয় মেহেরম্নন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বই উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান মো. কওসার আলী জোয়াদ্দার। এ দিকে নতুন বছরের শুরম্নতে নতুন শ্রেণির নতুন বই পাওয়ার আনন্দই আলাদা বলে জানিয়েছে শিড়্গার্থী, শিড়্গক ও অভিভাবক।


নেংগুড়াহাট প্রতিনিধি জানান, মনিরামপুর উপজেলার নেংগুড়াহাট ফাজিল সিনিয়র মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে বছরের প্রথম দিনে বই উৎসব হয়েছে। এ সময় বিদ্যায়ে সোনামণিদের হৈ-হুল্লোড় আর বাঁধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস ছিল। হাতে বই নিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের মুখে ছিল হাসি আর আনন্দের বন্যা। উৎসবে নতুন বই তুলে দেন মাদ্রাসার সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান। এ সময় বক্তব্য রাখেন অধ্যড়্গ আব্দুল ওহাব, উপাধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুর রউফ, সহকারী অধ্যাপক আনিছুর রহমান।

বেনাপোল প্রতিনিধি জানান, বেনাপোলে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে পাঠ্যপুু¯ত্মক উৎসব-২০২৩ উদ্যাপিত হয়েছে। রোববার বেলা ১০টার দিকে বেনাপোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত এ উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন যশোর- ১ (শার্শা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন।


বেনাপোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আয়োজনে ও শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নারায়ন চন্দ্র পালের সভাপতিত্বে পাঠ্যপু¯ত্মক উৎসবে শিশু-কিশোর ও অবিভাবকদের নিয়ে শিড়্গামূলক আলোচনা সভা হয়। পরে শার্শা উপজেলার ১৮২টি শিড়্গা প্রতিষ্ঠানের ৪৮ হাজার ৫৮৩ জন শিড়্গার্থীর মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের বই তুলে দেওয়ার উদ্বোধন করেন শেখ আফিল উদ্দিন এমপি।


তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত করতে হলে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সোনার মানুষ তৈরি করতে হবে। আর সেই লড়্গ্েযই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতি বছরের জানুয়ারি মাসের ১ তারিখে শিড়্গার্থীদের নিয়ে পাঠ্যপু¯ত্মক উৎসব উদ্যাপন ও অনুপ্রেরণা জুগিয়ে নতুন বই উপহার দিয়ে আসছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মনে প্রাণে বিশ্বাস করেন আজকের শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাই এই ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বাধ্যতামূলক সুন্দরভাবে প্রস্ফুটিত করতে পারলে আমরা উন্নত সমৃদ্ধ সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠিত করতে পারব।


এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শার্শা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু ও নির্বাহী কর্মকর্তা নারায়ন চন্দ্র পাল, মাধ্যমিক শিড়্গা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান চৌধুরী, প্রাথমিক শিড়্গা কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামাল হোসেন ভুঁইয়া ও বেনাপোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোজাফফর হোসেন স্বপন বিশ্বাস।
বাগেরহাট প্রতিনিধি জানান, নতুন বছরের প্রথম দিনে নতুন বইয়ে খুশিতে মেতেছে শিক্ষার্থীরা। রবিবার বেলা ১১টায় বাগেরহাট সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে বাগেরহাটে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান।


এর আগে বই বিতরণ উপলক্ষে বাগেরহাট সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রতন কৃষ্ণ হাওলাদারের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. আরিফুল ইসলাম, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. কামরম্নজ্জামামান, বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিনের একাšত্ম সচিব শেখ ফিরোজুল ইসলাম প্রমুখ।
নতুন বই পাওয়া চতুর্থ শ্রেণিতে ছাত্রী আসমাউল হুসনা জানান, নতুন বছরের প্রথম দিনে নতুন বই পেয়ে খুব ভাল লাগছে। মনে হচ্ছে ঈদের থেকেও বেশি আনন্দ লাগছে।


বাগেরহাট সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী অহনা আক্তার বলেন, নতুন বইয়ের গন্ধ পেয়ে খুব ভাল লাগছে। সবাই এক সাথে বই পেয়েছি আমরা। সবাই আনন্দ করছে। সবাইকে এক সাথে বই দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।


অভিভাবক রবিউল ইসলাম বলেন, আমরা যখন পড়াশুনা করেছি তখন বই কিনে পড়তে হত। বছরের প্রথম দিনে নতুন বইয়ের কথাতো চিšত্মাই করা যেত না, মার্চ-এপ্রিল মাসের দিকে বই কিনতে হত। কিন্তু বছরের প্রথম দিনে নতুন বই পেয়ে আমাদের বাচ্চারা খুব খুশি হয়েছে। আমরাও খুশি হয়েছি। মনে হচ্ছে সবার মধ্যে ঈদ আনন্দ বিরাজ করছে।


শুধু বাগেরহাট সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় নয়, সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়, আদর্শ বিদ্যালয়, বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়সহ জেলার বেশির ভাগ প্রাথমিক, মাদরাসা, নি¤্ন মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে উৎসব মুখর পরিবেশে বই বিতরণ করা হয়েছে।
এদিন জেলার নি¤্ন মাধ্যমিক, মাধ্যমিক, মাদরাসা ও বিভিন্ন কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৭ লাখ ২৯ হাজার ৭২৯ টি বই বিতরণ করা হয়। এছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সাড়ে তিন লক্ষাধিক বই বিতরণ করা হয়েছে।
বাগেরহাটের রামপালে ইংরেজি নববর্ষের প্রথম দিনে বই উৎসব হয়েছে। এ উৎসবে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ৫০ শতাংশ ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ৭০ শতাংশ বই পেয়েছে।

রামপাল উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মতিউর রহমান জানান, এ উপজেলায় প্রাক প্রাথমিকে ৩ হাজার ২৫ টি শিশুকে শতভাগ বই দেয়া হয়েছে। ২ হাজার ৯৭০ জন ১ম শ্রেণির শিক্ষার্থীর মাঝে ১ খানা, ২য় শ্রেণির ২ হাজার ৮২৫ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ২ খানা, ৩য় শ্রেণির ২ হাজার ৭৪৫ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৩ খানা, ৪র্থ শ্রেণির ২ হাজার ৬১০ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৩ খানা ও ৫ম শ্রেণির ২ হাজার ২৭৫ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ৩ খানা করে বই বিতরণ করা হয়েছে। প্রাথমিকের ১২৮ টি, কিন্ডারগার্টেনের ৯ টি ধরে মোট ১৩৭ টি বিদ্যালয়ের মোট ১৬ হাজার ৪৫০ জন শিক্ষার্থীর মাঝে শতকরা ৫০ ভাগ বই বিতরণ করা হয়েছে।

মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সম্পূর্ণ পরিসংখ্যান না পাওয়া গেলেও শতকরা ৭০ ভাগ বই বিতরণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতনিধি জানান, বাগেরহাটের শরণখোলায় শিক্ষার্থীরা পেলো নতুন বছরের বই। এ উপলক্ষে রোববার সকাল ১০টায় রায়েন্দা সরকারি পাইলট হাই স্কুলে অনুষ্ঠিত হয়েছে বই উৎসব।


রায়েন্দা সরকারি পাইলট হাই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নির্মলেন্দু হালদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বই উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নূর-ই আলম সিদ্দিকী।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নুরম্নজ্জামান খান ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আশারাফুল ইসলাম।


পরে উপজেলা সদরের আরকেডিএস বালিকা বিদ্যালয়, শরণখোলা আইডিয়াল ইনস্টিটিউট এবং রায়েন্দা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসব পালিত হয়। এসব অনুষ্ঠানে ইউএনও নূর-ই আলম সিদ্দিকী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন।

উপজেলা মাধ্যমিক ও প্রাথমকি শিক্ষা কর্মকর্তা জানান, এদিন একযোগে উপজেলার সরকারি-বেসরকারি ১৪২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ২০টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ১৬ টি মাদ্রাসার মোট ২৯ হাজার ১৯০ জন শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই তুলে দেওয়া হয়েছে


নিজস্ব প্রতিবেদক, কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি জানান, নতুন বছরের প্রথম দিনে নতুন বই পেয়ে বই উৎসবে মেতে উঠেছে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা। রোববার সকাল থেকেই একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণের উদ্বোধন করেছেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আনোয়ারম্নল আজীম আনার। সকাল সাড়ে ৯ টায় কালীগঞ্জ সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত জাহানের সভাপতিত্বে বই বিতরণ করা হয়। বই বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এমপি আনার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের পর এখন স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা আগামীতে দেশের সকল শিক্ষার্থীরা উন্নত প্রযুক্তি ট্যাব ব্যবহারের মাধ্যমে লেখাপড়া করবে। এ অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফারম্নক হোসেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন তোতা প্রমুখ।


অনুরূপভাবে সকাল ৯ টায় নলডাঙ্গা ভূষণ শিশু একাডেমীতে বই বিতরণ উদ্বোধন করেন কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম আশরাফ। বিদ্যালয়টিতে ৩য়, ৪র্থ ও পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই দেওয়া হয়। কিন্তু বই না আসার কারণে ওই বিদ্যালয় সহ উপজেলার কোন প্রাথমিক বিদ্যালয়েই ১ম ও ২য় শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থীরা বই পায়নি। গতকাল প্রচন্ড শীতের কুয়াশা উপেক্ষা করেও দিনভর কালীগঞ্জে মোবারক আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কোলাবাজার ইউনাইটেড স্কুল, সলিমুন্নেছা বালিকা বিদ্যালয়. নিশ্চিšত্মপুর ভূষণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, জহুরা খাতুন প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ উপজেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ে বই বিতরণে উৎসব চলেছে।

কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি জানান, কয়রায় নতুন বছরের জন্য প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বই বিতরন করা হয়েছে। ১ জানুয়ারি বেলা ১১ টায় কয়রা মদিনাবাদ সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরম্নমে বই উৎসব অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিড়্গক দেলোয়ার হোসেন। মদিনাবাদ মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিড়্গক শহীদ সরোয়ারের পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কয়রা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ এসএম শফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা শিড়্গা অফিসার মো. হাবিবুর রহমান ও মাধ্যমিক শিড়্গা অফিসার মো. বাকী বিলস্নাহ। বক্তব্য রাখেন রিসোর্স সেন্টারের ইনন্সটেক্টর মো. লোকমান হোসেন, সহকারী শিড়্গা অফিসার আবু খালেদ, মো. আনোয়ার হোসেন, বুধার চন্দ্র মন্ডল, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি প্রভাষক বিদেশ রজ্ঞন মৃধা প্রমুখ।


পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি জানান, পাটকেলঘাটার কুমিরা বহুমূখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নতুন শিক্ষা বছরের বই বিতরণ করা হয়েছে। রোববার সকাল ১০টায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বই বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তালা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ নুরম্নল ইসলাম।
এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা এরফান আলী, প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক নেছার আলী, আশীষ কুমার বসু, সদস্য রফিকুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা মাহফুজুর রহমান মধু, সহকারী প্রধান শিক্ষক পরিমল কুমার প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন শিক্ষক সজিবুদৌলা। এছাড়াও জেসিএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আমিরম্নন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, নগরঘাটা কবি নজরম্নল বিদ্যাপীঠ, কুমিরা পাইলট বালিকা বিদ্যালয়, ফুলবাড়ী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পাটকেলঘাটা আল-আমিন ফাজিল মাদরাসা, বঙ্গবন্ধু পেশাভিত্তিক মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পারকুমিরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিড়্গাপ্রতিষ্ঠানে নতুন শিক্ষাবর্ষে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

মেহেরপুর প্রতিনিধি জানান, মেহেরপুরের সরকারি, বেসরকারি ও কিন্ডারগার্টেনসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বছরের প্রথম দিনে বই পেয়ে খুশি শিড়্গার্থীরা। নতুন বই হাতে নিয়ে শিড়্গার্থীরা আনন্দ করতে করতে মেঠো পথ ধরে বাড়ি ফিরছে। এ দৃশ্য সচরাচর আর চোখে পড়েনা। বছরের প্রথম দিনে সদর উপজেলার ফতেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিড়্গার্থীরা নতুন বই পাবার পর উৎসব করে বাড়ি ফেরা গ্রামের মানুষের চোখে পড়ে।
সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আপিল উদ্দিন জানান, সব বিষয়ের বই এখনও এসে পৌঁছেনি। তবে দুই তিনদিনের মধ্যেই সব বই পৌছে যাবে বলে আশা করছেন তিনি। বছরের প্রথম দিনে বই উৎসবের জন্য রোববার সকালের মধ্যে সব স্কুলেই কম বেশি বই পৌঁছে দেয়া হয়েছে।


মেহেরপুর সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের উদ্যোগে মেহেরপুর সদর উপজেলার আমঝুপি প্রাথমিক সরকারি বালক বিদ্যালয় চত্বরে সদর উপজেলা পর্যায়ে বই উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইয়ারম্নল ইসলাম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই তুলে দেন। সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আপিল উদ্দিনের সভাপতিত্বে বই উৎসব অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়দুলস্নাহ।

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি জানান, ঝিনাইদহের মহেশপুর সরকারি মডেল পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বরে নতুন বছরের প্রথম দিনেই নতুন ক্লাসের নতুন বই ছাত্রছাত্রীদের হাতে তুলে দিয়ে বই উৎসব পালন করা হয়েছে।
বই উৎসবের দিনে সংসদ সদস্য আলহাজ শফিকুল আজম খান চঞ্চল অনুষ্ঠানিকভাবে সরকারি প্রথমিক বিদ্যালয় ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন।


মহেশপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নয়ন কুমার রাজবংশীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বই বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ শফিকুল আজম খান চঞ্চল।


বই বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ময়জদ্দীন হামিদ, ভাইস চেয়ারম্যান আজিজুল হক আজা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাসিনা খাতুন হেনা, মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খন্দকার শামীম উদ্দিন, উপজেলা মাধ্যমিক শিড়্গা কর্মকর্তা দীনেশ চন্দ্র পাল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর সুলতানুজ্জামান লিটন, মহেশপুর সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিড়্গক জহুরম্নল ইসলাম, সিনিয়র শিড়্গক আক্তারম্নজ্জামান, খায়রম্নল ইসলাম, শাহারিয়ার টিপু সুলতান প্রমুখ।

সাতড়্গীরা প্রতিনিধি জানান, সাতক্ষীরায় উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে বই বিতরণ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা প্রশাসনের আয়োজনে শহরের সিলভার জুবিলী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বই বিতরণ উৎসব সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির। এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে নতুন বই তুলে দেন সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মো¯ত্মাক আহমেদ রবি।
বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার অজিত কুমার, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস. এম আবদুল্লাহ আল-মামুন, জেলা তথ্য অফিসার মো. জাহারম্নল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারম্নন উর রশিদ প্রমুখ।

চিতলমারী প্রতিনিধি জানান, বাগেরহাটের চিতলমারীতে উৎসবমুখর পরিবেশে ১৯৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হয়েছে। সারাদেশের ন্যায় এ উপজেলার ২৬ হাজার শিক্ষার্থীর হাতে বছরের প্রথমদিন বই তুলে দেওয়া হয়। এ উপলক্ষে রোববার সকাল ১০টা থেকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক ¯ত্মরের প্রতিটি শিড়্গা প্রতিষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে এ বই বিতরণ করা হয়েছে।
সুরশাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী শিড়্গা কর্মকর্তা এস এম আলী আকবর। বিদ্যালয়ের সভাপতি অনুপ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক সেলিম সুলতান সাগর ও অভিভাবক কমিটির সদস্য আমেনা বেগম।
এ সময় বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষিক কল্যানী রানী বাড়ৈ, সহকারি শিক্ষক কাবেরী দেবনাথ, আরিফা সুলতানা, লিলি মজুমদার ও জাকিয়া খানম। বই বিবরণ অনুষ্ঠানে শতাধিক অভিভাবক উপস্থিত ছিলেন। চিতলমারী উপজেলা মাধ্যমিক শিড়্গক সমিতির সভাপতি অবনী মোহন বসু জানান, এ বছর আনন্দঘন পরিবেশের মধ্যে বই বিতরণ করা হচ্ছে। মাধ্যমিকে প্রায় ১০ হাজার শিড়্গার্থীকে বই দেয়া হয়েছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া প্রতিশ্রম্নতি বা¯ত্মবায়নের লক্ষে উৎসবমুখর পরিবেশে বই বিতরণ করেছি। বিদ্যালয়ের চাহিদা অনুযায়ী আমরা প্রাথমিকে ১৬ হাজার শিড়্গার্থীর বই পৌঁছে দিয়েছি।’

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি জানান, পাইকগাছার বিভিন্ন শিড়্গা প্রতিষ্ঠানে বই উৎসব উদ্যাপিত হয়েছে। এ উপলড়্গে বিভিন্ন মাধ্যমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিড়্গার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হয়। রোববার সকালে উপজেলা সদরের সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, টাউন মাধ্যমিক বিদ্যালয়, শহীদ গফুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সরল দীঘির পাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও আদর্শ শিশু বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিড়্গা প্রতিষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বই বিতরণ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার ইকবাল মন্টু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম ও মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর। এসব পৃথক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা শিড়্গা অফিসার বিদ্যুৎ রঞ্জন সাহা, ইউআরসি ইন্সট্যাক্টর ইমান উদ্দীন, একাডেমিক সুপার ভাইজার মীর নূরে আলম সিদ্দিকী, সহকারী শিড়্গা অফিসার আছাদুজ্জামান, প্রধান শিড়্গক খালেকুজ্জামান, রবীন্দ্রনাথ দে, নারায়ণ চন্দ্র শিকারী, আশুতোষ কুমার মন্ডল, মিলিজিয়াসমিন, সেলিনা পারভীন, কবির আহম্মেদ, কাউন্সিলর আব্দুল গফফার মোড়ল, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মো. আব্দুল আজিজ, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জগদীশ চন্দ্র রায়, প্রভাষক আছাবুর রহমান শিমুল, সাংবাদিক পূর্ণ চন্দ্র মন্ডল ও মাজহারম্নল ইসলাম মিথুন।

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি জানান, ফুলতলার বিভিন্ন শিড়্গা প্রতিষ্ঠানে রোববার সকালে বই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসব অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউএনও খোশনূর রম্নবাইয়াৎ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ শেখ আকরাম হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কে এম জিয়া হাসান তুহিন, প্রাথমিক শিড়্গা অফিসার মুহা. আবুল কাশেম, সহকারী শিড়্গা অফিসার মাসুদ রান ও মোঃ আসাদুজ্জামান। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শিড়্গক সমিতির সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সম্পাদক মুরাদুল ইসলাম প্রমুখ। আলহাজ্ব হাসান এনামুল হকের সভাপতিত্বে ফুলতলা রি-ইউনিয়ন স্কুল এন্ড কলেজে বই বিতরণ উপলড়্গে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তৃতা করেন প্রধান শিড়্গক অজয় চক্রবর্তী। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন সহকারী প্রধান শিড়্গক দেলোয়ার হোসেন, শিড়্গক সন্দিপন রায়, সেলিনা খাতুন প্রমুখ। ফুলতলার জামিরা বাজার আসমোতিয়া স্কুল এন্ড কলেজে অধ্যড়্গ গাজী মারম্নফুল কবিরের সভাপতিত্বে বই উৎসবে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জুলফিকার আলী মোল্যা, খাদিজা খাতুন, শাহারিয়ার মোল্যা প্রমুখ। গাড়াখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিড়্গক তাপস কুমার বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিড়্গা অফিসার ফাতেমা খাতুন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিদ্যালয়ের সভাপতি এস রবীন বসু। অন্যান্যের উপস্থিত ছিলেন পরিচালনা কমিটির সদস্য জিয়াউর রহমান, মতিয়ার রহমান, ইকবাল খান, শিড়্গক কায়েদা আজম বিশ্বাস, আজাদ হোসেন গাজী, মাসুমা সুলতানা, নীলরতন মন্ডল প্রমুখ। দামোদর এম এম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিড়্গক এস এম এ হালিম সভাপতিত্বে এবং আলকা মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিড়্গক প্রশাšত্ম কুমার রায়ের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও বই বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। এ ছাড়াও ফুলতলা উপজেলার সকল প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনুরম্নপভাবে বই বিতরণ করা হয়।

খাজুরা (যশোর) প্রতিনিধি জানান, নানা আয়োজনে যশোরের বাঘারপাড়ায় বই উৎসব হয়েছে। রোববার এই উৎসবকে ঘিরে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠান হয়। টিপিএম খাজুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে উদযাপন করা হয় উপজেলার বই উৎসব। এতে চন্ডিপুর ক্লাস্টারের বন্দবিলা ইউনিয়নের ১৩টি প্রাথমিকের ৫ শতাধিক শিড়্গার্থী অংশ নেয়। এদিন সকালে আমন্ত্রিত অতিথিরা শিড়্গার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে এই উৎসবের উদ্বোধন করেন। এর আগে শিড়্গকেরা অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া উচ্ছ্বাসিত শিড়্গার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। পরে প্রাথমিক শিড়্গার মানোন্নয়নে ‘প্রদীপন’ নামের শিড়্গক সহায়িকার মোড়ক উন্মোচন করা হয়। জাতীয় কারিকুলামের সাথে মিল রেখে তৈরি করা হয়েছে প্রদীপন। এটি তৈরিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ জাকির হাসানকে সহযোগিতা করায় অনুষ্ঠানে ৫ জন প্রধান শিড়্গককে ক্রেস্ট দিয়ে সম্মাননা জানানো হয়। অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ভিক্টোরিয়া পারভীন সাথী, ইউএনও সৈয়দ জাকির হাসান, ইউএনও’র সহধর্মিণী যশোর সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজের সহযোগী অধ্যাপক শাহিনুর আক্তার, জেলা পরিষদ সদস্য সাইফুজ্জামান চৌধুরী ভোলা, বাঘারপাড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিড়্গা কর্মকর্তা আকরাম হোসেন, প্রাথমিক শিড়্গা কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান, জহুরপুর ইউপি চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিন্টু, বন্দবিলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ ডাকু, খাজুরা মাখনবালা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সভাপতি রম্নবেল রানা, টিপিএম খাজুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি জাকিয়া সুলতানাসহ বিভিন্ন শিড়্গা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, অভিভাবক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাংস্কৃতিক সংগঠন লাল-সবুজ’র সাধারণ সম্পাদক এস এম আরিফ। বিকেলে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে বই বিতরণ উৎসব শেষ হয়।

সম্পাদক ও প্রকাশক : শাহীন চাকলাদার  |  ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আমিনুর রহমান মামুন।
১৩৬, গোহাটা রোড, লোহাপট্টি, যশোর।
ফোন : বার্তা বিভাগ : ০২৪৭৭৭৬৬৪২৭, ০১৭১২-৬১১৭০৭, বিজ্ঞাপন : ০১৭৩০৮৫৫৯৭৯, ০১৭১১-১৮৬৫৪৩
Email : samajerkatha@gmail.com
স্বত্ব © samajerkatha :- ২০২০-২০২২
crossmenu linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram