৩১শে জানুয়ারি ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
এরফান হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে যুবক আটক
এরফান হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে যুবক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার এরফান হত্যাকান্ডের আলোচিত মামলার ক্লু উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের দাবি হত্যাকাণ্ডে অংশগ্রহণকারী এক যুবককে আটক করা হয়েছে। আটক তাওহীদ এরইমধ্যে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। পুলিশের ভাষ্য অনুযায়ী চাকরি দেয়ার নামে নেয়া পাঁচ লাখ টাকা ফেরত যাতে দিতে না হয় সেজন্য এরফানকে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে হত্যা করায় আব্দুল কাদের নামে এক ব্যক্তি। ‘তিনিই হত্যাকা-ের মূল পরিকল্পনাকারী।’ আব্দুল কাদেরকে পুলিশ আটক করেছে বলে শহরের ঘোপ এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানিয়েছেন। অবশ্য পুলিশের তরফ থেকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করা হয়নি।

রোববার গভীর রাতে উপশহর এলাকা থেকে তাওহীদকে চাকুসহ আটক করে র‌্যাব। পরে তাকে পুলিশে হস্তান্তর করে। পুলিশ সোমবার তাকে আদালতে নেয়। তাওহীদ ভাড়াটিয়া হিসেবে এরফানকে হত্যা করেছে বলে আদালতে স্বীকার করে। একই সাথে সহযোগী ও মূল পরিকল্পনাকারীরও নাম জানিয়েছে বলে একটি ষূত্র নিশ্চিত করেছে। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার দালাল তার জবানবন্দি গ্রহণ শেষে জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন। আটক তাওহিদ শহরের বেজপাড়া এলাকার শাহিনের ছেলে।


মামলায় জানা গেছে, গত ২২ ডিসেম্বর বিকেল চারটার দিকে শহরের খড়কি বামনপাড়া রোডে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে খুন হন একই এলাকার ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার এরফান উদ্দিন ফারাজী। ওই ঘটনায় নিহতের বড় ভাই ইমরান হোসেন অজ্ঞাতনামা আসামি দিয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। সেই মামলায় র‌্যাবের একটি টিম গত রোববার রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপশহর এলাকা থেকে তাওহিদকে আটকের পর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। গতকাল সোমবার তাওহিদকে আদালতে সোপর্দ করা হলে এই হত্যাকা-ে নিজে এবং সহযোগি জড়িত আসামিদের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে।

]
তাওহিদ জানিয়েছে, এলাকার বড় ভাই আব্দুল কাদের সরকারি চাকরি দেবে বলে খড়কি এলাকার এরফান উদ্দিন ফারাজীর কাছ থেকে ২০১৯ সালে ৫ লাখ টাকা গ্রহণ করেন। সময়মত চাকরি না দেয়ায় ওই টাকা ফেরতের জন্য বারে বারের কাদের ভাইকে তাগাদা দেয় এরফান। টাকা যাতে ফেরত দিতে না হয় সে জন্য এরফানকে খুন করার জন্য পরিকল্পনা করেন কাদের। পরিকল্পনা অনুযায়ি একই এলাকার আলামিন নামে একজনের সাথে কাদেরের ২৫ হাজার টাকায় চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ি তাওহিদ সাড়ে ৩ হাজার টাকা ভাগ পেয়েছেন। ঘটনার দিন ২২ ডিসেম্বর বিকেল চারটার দিকে শহরের খড়কি বামনপাড়া রোডে আলামিনের নির্দেশে তার ভাই পাখি, তাওহিদ, শিশির, রাহুল ও বিপ্লবসহ ৫জনে সেখানে যায়। দোকানের মধ্যে বসে থাকা অবস্থায় এরফানের কাছে একটি চিপস কিনতে চায় পাখি। চেয়ার থেকে উঠে চিফসটি হাতে দেয়ার মুহুর্তে এরফানের বুকে চাকু ঢুকিয়ে দেয়া হয়। এ সময় এরফানের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা দৌড়ে পালিয়ে চলে যায়।


এরপর এই ঘটনার মামলার আসামিদের আটকের জন্য ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব। তারই অংশ হিসেবে রোববার গভীর রাতে তাওহিদকে আটকের পর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। পুলিশ এদিন তাকে আদালতে সোপর্দ করলে হত্যার দায় স্বীকার করে এবং অর্থযোগানদাতা ও সহযোগিদের নাম প্রকাশ করে জবানবন্দি দিয়েছে তাওহিদ।


এদিকে তাওহিদকে আটকের পর হত্যাকা-ে ব্যবহৃত চাকু উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাছাড়া এই হত্যাকা-ে মূল পরিকল্পনাকারী আব্দুল কাদেরকে সোমবার সন্ধ্যায় শহরের ঘোপ এলাকার হলদি মিলের পেছনে নাজমা বেগম দিপুর বাড়ি থেকে আটক করেছে বলে স্থানীয়রা কয়েকজন জানিয়েছেন। এ হত্যাকান্ডের পর থেকে কাদের ওই বাড়িতে ছিলেন বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। এলাকা থেকে পুলিশ আটক করেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। কিন্তু এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কাদেরকে আটকের বিষয়টি স্বীকার করেনি পুলিশ।


স্থানীয়রা জানিয়েছে আব্দুল কাদের চাঁচড়া রায়পাড়া কয়লাপট্টি এলাকার আব্দুল মজিদের ছেলে। তার মা সকিনা বেগম একজন চিহ্নিত মাদক কারবারি। অপরদিকে তাওহিদকে আটকের পর এরফান উদ্দিন ফারাজী হত্যাকা-ে জট খুলতে শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুরাতন কসবা পুলিশ ফাঁড়ির এসআই প্রদীপ কুমার রায়।

সম্পাদক ও প্রকাশক : শাহীন চাকলাদার  |  ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আমিনুর রহমান মামুন।
১৩৬, গোহাটা রোড, লোহাপট্টি, যশোর।
ফোন : বার্তা বিভাগ : ০২৪৭৭৭৬৬৪২৭, ০১৭১২-৬১১৭০৭, বিজ্ঞাপন : ০১৭৩০৮৫৫৯৭৯, ০১৭১১-১৮৬৫৪৩
Email : samajerkatha@gmail.com
স্বত্ব © samajerkatha :- ২০২০-২০২২
crossmenu linkedin facebook pinterest youtube rss twitter instagram facebook-blank rss-blank linkedin-blank pinterest youtube twitter instagram