যশোরে আট ভারতীয়সহ নয়জন আটক : মদ ফেনসিডিল উদ্ধার

54
‘অসংখ্য মাদক মামলার সাক্ষি’ রহিম ফেনসিডিলসহ আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক :
যশোরে র‌্যাব, ডিবি পুলিশ কোতোয়ালি থানা পুলিশের অভিযানে মাদকসহ নয়জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের মধ্যে আটজন ভারতীয় নাগরিক। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর ২০২২) পৃথক অভিযানে তাদেরকে আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে নতুন মাদক ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট, মদ, ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব যশোরের কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার এম নাজিউর রহমান জানান, গোপন খবরের ভিত্তিতে ১৮ বোতল ভারতীয় মদসহ ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চুড়িপট্টি এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, ভারতের ২৪ পরগনা জেলার বনগাঁও উপজেলার কালীয়ানী গ্রামের কেনারাম মন্ডলের ছেলে সুব্রত মন্ডল, গাইঘাটা উপজেলার ঝিকরা গ্রামের ব্যাসদেব রায়ের ছেলে শ্রীকান্ত রায়, বাগদা উপজেলার পারকৃষ্ণচন্দ্রপুর গ্রামের পুতুল হালদারের মেয়ে অনিমা হালদার, বনগাঁও উপজেলার কালিয়ানি গ্রামের পাঁচু গোপালের ছেলে দেবব্রত মন্ডল, একই উপজেলার নেহারুন নগরের বিষ্ণুপদ দাসের ছেলে ভোলা দাস রামনগর রোডের মদন সরকারের ছেলে বলরাম সরকার।

এদিকে, ডিবি পুলিশ জানায় যশোরে আড়াই হাজার পিস ট্যাপেন্টাডল ট্যাবলেট, ৪০ প্যাকেট বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মদ, নয় বোতল ভারতীয় মদসহ দুই ভারতীয়কে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হলেন, ভারতের ২৪ পরগনা জেলার দত্তপুকুর উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামের মৃত জীবন কুমার সরকারের ছেলে জয়দ্বীপ সরকার বনগাঁও উপজেলার দেবগর গ্রামের অমর কীর্ত্তনীয়র ছেলে অমিয় কীর্ত্তনীয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে শহরের আশ্রম মোড় এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

যশোর কোতোয়ালি থানা পুলিশ জানায়, ২৩ বোতল ফেনসিডিলসহ বারান্দিপাড়া বাঁশতলা এলাকার মো. সোহেলকে আটক করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। সোহেল ওই এলাকার আশরাফের ছেলে। বৃহস্পতিবার রাত আটটার পর বারান্দিপাড়া ঢাকা ব্রিজের পাশ থেকে তাকে আটক করা হয়। এদিকে, পৃথক এসব ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়েরের পর আসামিদের আদালতে সোপর্দ করা হয়। আদালত তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।