স্ত্রীর মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে এসে যুবক ছুরিকাহত

82
স্ত্রীর মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে এসে যুবক ছুরিকাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক :
স্ত্রীর যৌতুক মামলায় অভয়নগর থেকে হাজিরা দিতে এসে যশোর আদালতের পাশেই ছুরিকাহত হয়েছেন ইমরান হোসেন নামে এক যুবক।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর ২০২২) দুপুরে শহরের রেলগেট এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী পিচ্চি রাজার নেতৃত্বে সিভিল কোর্ট মোড়ে এই ঘটনার পর স্থানীয়রা তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। আহত ইমরান হোসেন অভয়নগর উপজেলার পুড়াখালী গ্রামের আব্দুল মান্নান শেখের ছেলে।
ভুক্তভোগীর স্বজনেরা জানিয়েছেন, ২০১৪ সালের ১৪ নভেম্বর মণিরামপুরের খাটুয়াডাঙ্গা গ্রামের সবুজ গাজীর মেয়েকে বিয়ে করেন ইমরান হোসেন। বিয়ের পর থেকেই তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য দেখা দেয়। সে কারণে চলতি বছরের ১৪ জুলাই তাদের তালাক হয়ে যায়। কিন্তু তালাকের কিছুদিন পরে জানতে পারেন ইমরানের বিরুদ্ধে যশোর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে যৌতুক নিরোধ আইনে মামলা করেছেন তার স্ত্রী। এরই মধ্যে ইমরানের শ্যালক শাওন গাজী তার বন্ধু শহরের রেলগেট এলাকায় পিচ্চি রাজাকে দিয়ে হত্যা করার হুমকি দেয়। আর ইমরানকে হত্যার হুমকির বিষয়টি তার ভগ্নিপতি মফিজ উদ্দিনকে ২৭ আগস্ট জানিয়েছে।
বৃহস্পতিবার স্ত্রীর দেয়া যৌতুক মামলায় হাজিরা দিয়ে যশোর আদালত থেকে বের হয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন ইমরান। সিভির কোর্ট মোড়ে পৌঁছানো মাত্র রেলগেটের পিচ্চি রাজা, ষষ্ঠীতলার নিশান ও খড়কি কলাবাগানের পলাশসহ কয়েকজন ইমরানকে এলোপাতাড়িভাবে ছুরিকাঘাত করে। ইমরানের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা পালিয়ে চলে যায়। এরপর ইমরানকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কোতোয়ালি মডেল থানার ডিউটি অফিসার এসআই শারমিন আক্তার।
উল্লেখ্য পিচ্চি রাজা একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে হত্যা, অস্ত্র, চাঁদাবাজি ও বোমাবাজিসহ ডজনখানেক মামলা রয়েছে।