দেবহাটায় পুত্রবধূর ধাক্কায় শাশুড়ি নিহতের অভিযোগ

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ॥ সাতক্ষীরার দেবহাটায় পুত্রবধূর ধাক্কায় শাশুড়ি নিহত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার বিকেলে দেবহাটার দেবীশহর গ্রামে এ ঘটনা ঘটার পর গভীর রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত শাশুড়ি মর্জিনা খাতুন (৬৪) দেবীশহর গ্রামের আব্দুর রহমানের স্ত্রী। তাকে ধাক্কা দেয়া মিতা পারভীন (২৫) হাসান কারিগরের স্ত্রী ও মর্জিনা খাতুনের ছোট বউমা।

স্থানীয়রা জানান, তুচ্ছ কারণে বুধবার বিকেলে রান্না করা নিয়ে পুত্রবধূ-শাশুড়ির ঝগড়া শুরু হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে শাশুড়ি মর্জিনা খাতুন পুত্রবধূ মিতা পারভীনকে চড় মারেন। ক্ষিপ্ত হয়ে মিতা এসময় শাশুড়িকে দেওয়ালে ধাক্কা মারেন। এতে মাথা ফেটে তিনি গুরুতর আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় মর্জিনা খাতুনকে পরিবারের সদস্যরা প্রথমে সখিপুর স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে ও পরে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। বুধবার মধ্যরাতে মর্জিনা খাতুন সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

মর্জিনার স্বামী আব্দুর রহমান জানান, মরদেহ বাড়িতে এনে রাখা হয়েছে। বাদ যোহর জানাজার নামাজ হবে। পারিবারিক কলহে বউমার দেওয়া ধাক্কায় শাশুড়ি মারা গেছেন-এটা স্বীকার করে তিনি বলেন, মামলা-মোকদ্দমার ঝামেলায় যাব না বিধায় ময়নাতদন্ত করা হয়নি।

দেবহাটা থানার ওসি শেখ ওবায়দুল¬াহ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার