শার্শায় ইউপি সদস্যকে গলাকেটে হত্যা চোরাচালানের সিন্ডিকেট পরিচালনা ও স্বর্ণ পাচার নিয়ে দ্বন্দ্বে বাবলু হত্যাকাণ্ড! 

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ চোরাচালানের সিন্ডিকেট পরিচালনা ও স্বর্ণ পাচার নিয়ে দ্বন্দ্বে যশোরের শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আশানুজ্জামান (৪৫) ওরফে গোল্ড বাবলুকে হত্যা করা হয়েছে। স্থানীয় একাধিক সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে। মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে বেনাপোল পোর্ট থানার বালুন্ডা বাজারে তাকে বোমা মেরে ও গলাকেেট হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় আরো দু’জন আহত হন।

নিহত আশানুজ্জামান বাবলু শার্শা উপজেলার মহিষাকুড়া গ্রামের রমজান মোল্লার ছেলে এবং বর্তমান ৮ নং বাগআঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য। আহতরা হলেন একই উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের আদম আলীর ছেলে রাজু (৩৫) বালুন্ডা গ্রামের ইসমাইল উলার ছেলে সাইদুর উলা(৩৬)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বালুন্ডা বাজারে বাবলুর একটি বাড়ি আছে। বাড়ির সামনে একটি চায়ের দোকানে বসে গল্প করছিলেন তিনি। এ সময় একদল সন্ত্রাসী মোটরসাইকেলে এসে প্রথমে ৪/৫ টি বোমা নিক্ষেপ করে। বোমার শব্দে আশেপাশের লোকজন সরে গেলে বাবলুকে গলাকেটে হত্যা করে তারা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় এলাকায় চরম আতংক বিরাজ করছে।

এলাকার অনেকে বলেছেন, চোরাচালানের সিন্ডিকেট পরিচালনা ও স্বর্ণ পাচারের ব্যবসায়ীক দ্বন্দ্বে এ ঘটনা ঘটেছে।

বেনাপোল পোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ কামাল হোসেন ভূইয়া বলেন, কে বা কারা তাকে হত্য করেছে এখুনি বলা যাচ্ছে না। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। মরদেহ উদ্ধার করে থানায় আনা হবে। পরে ময়না তদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

শেয়ার