শালিখার ইজিবাইক চালক আল আমিন হত্যা মামলার চার্জশিট, ৪ জন অভিযুক্ত 

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের বাঘারপাড়ার বুধোপুর গ্রামে মাগুরা শালিখার ইজিবাইক চালক আল আমিন হত্যা মামলায় ৪ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন বাঘারপাড়া থানার এসআই হরষিত রায়। অভিযুক্ত আসামিরা হলো যশোর সদরের সাতমাইল মথুরাপুর গ্রামের হযরত আলীর ছেলে আলামিন, চাঁচড়া রায়পাড়ার সুলতান মল্লিকের ছেলে রাসেল, মাগুরা শালিখার রামপুর গ্রামের জাহঙ্গীর খানের ছেলে জুয়েল খান ও সেলিম হোসেনের ছেলে হারুন অর রশিদ।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, মাগুরা শালিখার হরিশপুর গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে আল-আমিন ২০২১ সালের ৯ ডিসেম্বর সকাল ৮টার দিকে সিমাখালী থেকে তিনজন যাত্রী নিয়ে যশোরের বাঘারপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হন। এরপর থেকে আল আমিন নিখোঁজ হন। বিভিন্নস্থানে খোঁজ করে আল আমিনকে উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে শালিখা থানায় একটি অভিযোগ দেন। ১১ ডিসেম্বর বাঘারপাড়ার বুধোপুর গ্রামের নওশের আলীর লিচু বাগান থেকে আল আমিনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় বাঘারপাড়া থানায় একটি মামলা হয়।
এই হত্যার রহস্য ও আসামি আটকের জন্য র‌্যাব গোয়েন্দা তৎপরতা শুরু করে। ওই বছরের ২৪ ডিসেম্বর রাতে হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে আলামিনকে আটক করে। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে জুয়েল খান, হারুন অর রশিদ ও রাসেলকে আটক করে। এসময় রাসেলের বাড়ি থেকে ইজিবাইকের ৫ টি ব্যাটারি ও একটি চাকা উদ্ধার করা হয়। পরদিন আটক চারজনকে বাঘারপাড়া থানায় সোপর্দ করে র‌্যাব। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আটক চারজনকে আদালতে সোপর্দ করলে হত্যা ও চোরাই ইজিবাইকের মালামাল ক্রয়ের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেয়। এ মামলার তদন্তকালে আটক আসামিদের দেয়া তথ্য ও সাক্ষীদের বক্তব্যে হত্যা ও সহযোগিতার অভিযোগে ওই চারজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এ চার্জশিট জমা দিয়েছেন। চার্জশিটে অভিযুক্ত চারজনকে আটক দেখানো হয়েছে।

শেয়ার