স্ত্রী, শ্বশুর শাশুড়িকে আসামি করে যৌতুক নিরোধ আইনে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্ত্রী, শ্বশুর শাশুড়িকে আসামি করে যৌতুক নিরোধ আইনে যশোর আদালতে একটি মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ঝিকরগাছার বোদখানা গ্রামের দাউদ আলীর ছেলে সাহেব আলী এ মামলা করেছেন। সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার দালাল অভিযোগের তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দিয়েছেন ঝিকরগাছা থানার ওসিকে।

আসামিরা হলো বোদখানা গ্রামের আখতার হোসেন ও তার স্ত্রী শাহিতাজ বেগম এবং মেয়ে রোমেনা আফাজ।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, সাহেব আলী পেশায় একজন গরু ব্যবসায়ী। ২০১৯ সালের ১৭ ডিসেম্বর সাহেব আলী পারিবাকিভাবে দেখাশুনা করে রোমেনাকে বিয়ে করেন। তাদের ১ বছর ৮ মাসের একটি শিশু পুত্র আছে। চলতি বছরের ৯ এপ্রিল সাবেহ আলী ব্যবসার ৫ লাখ টাকা স্ত্রী রোমেনার কাছে গচ্ছিত রাখেন পরদিন তিনি আবার এ টাকা দিয়ে ব্যবসার কাজে লাগাবেন বলে। পরদিন সকালে সাহেব আলী তার স্ত্রীর কাছে এ টাকা ফেরত চাইলে তিনি দিতে অস্বীকার করেন। একপর্যায়ে স্ত্রী রোমেনা তার গচ্ছিত ৫ লাখ টাকা নিয়ে পিতার বাড়ি চলে যান। এরপর রোমেনাকে বাড়ি ফিরে আসতে বললে তিনি আসতে রাজি হননি। একপর্যায়ে গত ১৫ এপ্রিল তিনি নিজে শ্বশুর বাড়ি রোমেনাকে আনতে যান। এ সময় রোমেনা তার কাছে ৫ লাখ টাকা অথবা ১০ লাখ টাকা যৌতুক হিেেসবে দাবি করেন। সাহেব আলী তার স্ত্রীর যৌতুকের দাবি মেনে না নেয়ায় তার মা ও পিতা তাকে পাঠাবেন না বলেও জানিয়ে দেন। একই সাথে রোমেনা তার সন্তানকে হত্যা করে তার সাথে সকল সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকি দেয়। বিষয়টি মীমাংসায় ব্যর্থ হয়ে তিনি যৌতুক নিরোধ আইনে আদালতে এ মামলা করেছেন।

শেয়ার