বান্ধবীর দাওয়াতে এসে মারপিটের শিকার তৃতীয় লিঙ্গের চার সদস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে বান্ধবীর দাওয়াতে এসে মারপিটের শিকার হলেন তৃতীয় লিঙ্গের চার সদস্য। এসময় তাদের আটকে রাখলে ট্রিপল (৯৯৯) নাইনে ফোন করলে পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে। পরে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল থেকে তারা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। বুধবার দুপুরে যশোর বেনাপোল ভবের বেড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, ষষ্ঠীতলা এলাকার আব্দুর রশিদের মেয়ে কোহেলী (১৯), যশোর শহরের রায়পাড়া এলাকার আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে মেঘা (২০), যশোর সদর উপজেলার সাতমাইল এলাকার মোহাম্মাদ আলীর মেয়ে নদী (২২) ও শহরতলী শেখহাটি এলাকার সিরাজুল ইসলামের মেয়ে টিকলি (২০)।

আহতরা জানান, বাঘারপাড়া এলাকার তৃতীয় লিঙ্গ সুমি বুধবার বেনাপোল ভবের বেড় এলাকায় আহতদেরসহ ১৫জনকে নিমন্ত্রণ করে। বান্ধবীর নিমন্ত্রণ পেয়ে সকলে ভবের বেড় যায়। পরে দুপুরে খাবার খেয়ে এলাকা নির্ধারণ নিয়ে নজরুল, পলবী, সুমি ও শিল্পীর সাথে তাদের কাথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে নজরুল, পলবী, সুমি ও শিল্পীসহ কয়েকজন মিলে কোহেলী, মেঘা, নদী ও টিকলিকে নির্যাতন ও মারপিট করে একটি ঘরে আটকে রাখে। পরে নদী ট্রিপল নাইনে ফোন করে বিষয় জানালে বেনাপোল পোর্ট এলাকার পুলিশ তাদের উদ্ধার করে। পরে আহতরা হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়।

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জসিম উদ্দিন জানান, আহতদের চাপা আঘাত কারা হয়েছে। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার