কুয়াদায় কিশোর গ্যাং এর দুই সদস্য আটক

কুয়াদা (যশোর) প্রতিনিধি: যশোর সদরের কুয়াদা দারুচ্ছুন্নাহ ফাজিল মাদ্রাসার এক ছাত্রকে মারপিটের ঘটনায় কিশোর গাং এর দুই সদস্যকে আটক করেছে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ।
স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, সদরের রামনগর ইউনিয়নের কুয়াদা দারুচ্ছুন্নাহ ফাজিল মাদ্রাসায় সপ্তম শ্রেণীর আব্দুর রহমান (১৫) নামের এক ছাত্রকে প্রেম সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তার মাথা ফাঁটিয়ে দিয়েছে কিশোর গাং এর সক্রিয় দুই সদস্য।
তার হলো, কুয়াদা এলাকার ভোজগাতী গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে নয়ন হোসেন(১৬) ও জামজামি গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে ইসরাফিল (১৭)। তারা এলাকায় কয়েকজনকে নিয়ে তৈরি করেছে বড় কিশোর গাং। মঙ্গলবার দুপুরে কুয়াদা দারুচ্ছুন্নাহ ফাজিল মাদ্রাসার ওই ছাত্রকে অমানবিক ভাবে নির্যাতন করেছে আলোচিত এই কিশোর গাং এর দুই সদস্য। এলাকায় তাদের বিরুদ্ধে মাদকসেবনসহ নানাধরনের অভিযোগ রয়েছে।
এ বিষয়ে কুয়াদা দারুচ্ছুন্নাহ ফাজিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যাক্ষ মাওঃ জসিম উদ্দিন বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে বহিরাগত দুইজন ছেলে এসে প্রতিষ্ঠানের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্র আব্দুর রহমানকে মারপিট করছিলো, তখন এলাকার জনগন ওই দুইজনকে আটকে রাখে। আমরা কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশকে জানালে তারা এসে ঐ দুই জনকে থানায় নিয়ে গেছে।

শেয়ার