চৌগাছা বাজারে দোকানের সাটার কেটে চুরি, ক্ষুব্ধ সাধারন ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চৌগাছা (যশোর)॥ যশোরের চৌগাছা বাজারে আবারও দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বাজারের যশোর মেইন বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন পুরাতন কৃষি ব্যাংকের নিচে সন্ধানী ইলেকট্রনিক্সের দোকানে এই চুরি হয়। এ সময় চোরেরা দোকানের সাটার কেটে ভিতরে ঢুকে ক্যাশ থেকে নগদ দেড় লক্ষাধিক টাকা নিয়ে যায়। সকালে ব্যবসায়ী আবুল হোসেন দোকান খুলতে এসে চুরির দৃশ্য দেখতে পান। প্রায় একমাস আগে সন্ধানী ইলেকট্রনিক্সের সামনের দোকান মোহন সাইকেল ষ্টোর হতে পরপর দু’দফা চুরি হয়। তারও কিছুদিন আগে কাপুড়িয়া পট্টি ও মাদ্রাসা সড়কে অন্তত ৮/১০টি দোকানে চুরির ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী আবুল হোসেন জানান, রাতে দোকান বন্ধ করে বাসায় যাই। সকালে দোকানে এসে দেখি দোকনের সাটারের তালা ঠিকই আছে, সাটার কেটে চোরেরা দোকানে ঢেেুক ক্যাশে থাকা প্রায় দেড় লাখ টাকা নিয়ে গেছে। মেইন সড়ক লাগোয়া দোকান হওয়ায় চোরেরা দোকানের সদর মুখে একটি পলিথিনের বস্তা রেখে নিরাপদে চুরি করে পালিয়ে যায়। মার্কেটের সিসি ক্যামেরার ফুডেজে দেখা গেছে, ১৫/১৬ বছরের ৩টি ছেলে প্যান্ট ও টি শাট গায়ে আছে। তারা প্রথমে মার্কেটের বিদ্যুতের সুইজ বন্ধ করে এরপর সাটার কেটে চুরি করে। চোরেরা যে সময়ে সাটার কাটা শুরু করে তখন সময় ভোর ৪ টা ২২ মিনিট। ৫ টার ভিতরে তারা চুরি সম্পন্ন করে চলে যায়।

এদিকে থেমে থেমে বাজারের বিভিন্ন দোকানে চুরির ঘটনায় ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা। তারা অভিযোগ করে বলেন, নাইট গার্ডের নিয়মিত মাসিক চাঁদা দেয়া হচ্ছে, তারপরও কেন বাজারের দোকান গুলো দিনদিন অনিরাপদ হয়ে উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে সাধারণ ব্যবসায়ীরা দ্রুত বাজার ব্যবসায়ী নেতাদের সাথে কথা বলবেন।

বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজী ইবাদৎ হোসেন বলেন, সকালে খবর পাওয়া মাত্রই আমরা ঘটনাস্থলে গেছি এবং চুরির বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। যে সময়ে চোরেরা ওই দোকানে চুরি করে তার কিছু আগেই বাজারের পাহারাদার (নাইটগার্ড) তারা ডিউটি েেছেড় চলে যায়। এই সুযোগেই চুরির ঘটনাটি ঘটেছে। নাইট গার্ডের ডিউটির সময়সীমা আরও কিছু বাড়ানো হবে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে চোর শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

শেয়ার