মধুচন্দ্রিমায় গিয়ে খুন প্যারাগুয়ের মাফিয়াবিরোধী আইনজীবী

সমাজের কথা ডেস্ক॥ প্যারাগুয়ের মাফিয়াদের বিরুদ্ধে আইনী লড়াই চালিয়ে দারুণ জনপ্রিয়তা পাওয়া দেশটির শীর্ষ আইনজীবী মার্সেলো পেচি খুন হয়েছেন। স্ত্রীকে নিয়ে কলম্বিয়ায় মধুচন্দ্রিমায় গিয়েছিলেন তিনি।

বিবিসি জানায়, কলম্বিয়ার বারুর ইডিলিচ পর্যটক দ্বীপের একটি সৈকতে অজ্ঞাত দুই বন্দুকধারী তাকে গুলি করে হত্যা করে।

পেচি খুন হওয়ার মাত্র কয়েকঘণ্টা আগে তার স্ত্রী ইন্সটাগ্রামে তার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর দিয়েছিলেন।

প্যারাগুয়ের প্রেসিডেন্ট মারিও আবদো বেনিতেজ একে ‘কাপুরুষিত হত্যাকান্ড’ বলে বর্ণনা করেন।

পেচির স্ত্রী ক্লাউডিয়া আগুইলেরা একজন সাংবাদিক। তিনি বলেন, তারা একটি ‘প্রাইভেট বিচে’ ছিলেন। হঠাৎ করেই দুইজন মানুষ তাদের সামনে আসে এবং তার স্বামীকে গুলি করে। তারা কোনো ধরনের হুমকি পাননি বলেও জানান।

স্থানীয় একটি পত্রিকাতে তিনি বলেন, ‘‘দুইজন মার্সেলোর উপর হামলা করে। তারা ছোট একটি নৌকা বা স্কি জেটের মত দেখতে কিছুতে করে আসে। সত্যি বলতে আমি ঠিকমত কিছুই দেখতে পাইনি।

‘‘হামলাকারীদের একজন নেমে আসে এবং কোনো কথা না বলে মার্সেলোকে দুইবার গুলি করে। একটি গুলি তার মুখে এবং অন্যটি পিঠে লাগে।”

এ দম্পতি ডেকামেরন হোটেলে উঠেছিলেন। হোটেল কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে বলেন, ‘‘ঘাতকরা সৈকত দিয়ে এসেছিল…এবং আমাদের একজন অতিথির উপর হামলা করে তাকে হত্যা করে।”

পেচির সহকর্মী আরেক আইনজীবীর বলেন, ‘‘যেভাবে হামলা হয়েছে তাতে মনে হচ্ছে এটা মাফিয়াদের কাজ। তবে বিষয়টি এখনো প্রমাণ সাপেক্ষ।”

কলম্বিয়ার পুলিশ প্রধান এবং প্যারাগুয়ের তদন্ত কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারাও এই তদন্তে সহায়তা করবেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

পেচি সংঙ্ঘবদ্ধ অপরাধ, মাদক পাচার, মুদ্রা পাচার এবং সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন বিষয়ে কাজ করতেন। এসব মামলায় তাকে রীতিমত বিশেষজ্ঞ মনে করা হত।

২০২০ সালে তিনি ব্রাজিলের সাবেক ফুটবল তারকা রোনালদিনহোর বিরুদ্ধে একটি মামলা লড়েছিলেন। রোনালদিনহো প্যারাগুয়ের ভুয়া পাসপোর্ট নিয়ে দেশটিতে প্রবেশের চেষ্টা করতে গিয়ে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন।

শেয়ার