দক্ষিণডিহিতে রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী আলোচনা সভায় খুলনা বিভাগীয় কমিশনার
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাংলাভাষাকে বিশ্বসাহিত্যের দরবারে পৌঁছে দিয়েছেন

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥ খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মো. ইসমাইল হোসেন এনডিসি বলেছেন, বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বাংলা ভাষাকে বিশ্বসাহিত্যের দরবারে পৌঁছে দিয়েছেন । আর তার উদ্ভাবনী এ কর্মকান্ডে প্রেরণা যুগিয়েছে সুযোগ্য সহধর্মিনী মৃণালিনী দেবী ওরফে ফেলি। তবে বর্তমান প্রজন্ম সাহিত্য চর্চায় অনেক পিছিয়ে। রবীন্দ্র চর্চার মাধ্যমে তাদেরকে জাগিয়ে তুলতে হবে। মানবিক ধর্মকে রবীন্দ্রনাথ তাঁর জীবনের শেষ গন্তব্যস্থল মনে করতেন। তিনি কোন ধর্মের ব্যাপারে স্থায়ী বিশ্বাস স্থাপন করতে পারেননি। কারণ তিনি বিশ্বাস করতেন মানুষের মঙ্গলই হলো পরম ধর্ম।

জেলা প্রশাসন আয়োজনে সোমবার বিকালে দক্ষিণডিহি রবীন্দ্র কমপ্লেক্সে মৃণালিনী মঞ্চে অনুষ্ঠিত ৩ দিনব্যাপী রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী আলোচনা অনুষ্ঠানে দ্বিতীয় দিনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। খুলনা জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক মুহম্মদ নুরুল হুদা। বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মাসুদুর রহমান ভুঞা, বিএল কলেজের অধ্যক্ষ শরীফ আতিকুজ্জামান, খুলনার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান। শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কাজী জাফর উদ্দিন, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বিএমএ সালাম, ওসি মোঃ ইলিয়াস তালুকদার। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মুকুল কুমার মৈত্র, ইউএনও সাদিয়া আফরিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আবুল বাশার, সাংবাদিক বিধানদাস গুপ্ত, সাংবাদিক তাপস কুমার বিশ^াস, শামসুল আলম খোকন, মো. নেছার উদ্দিন, শেখ মনিরুজ্জামান প্রমুখ। পরে শিল্পীদের পরিবেশনায় কবিতা আবৃত্তি, রবীন্দ্র সঙ্গীত ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন অ্যাড. মিনা মিজানুর রহমান, অনুপম মিত্র ও রাদিয়া ইসলাম প্রমুখ।

শেয়ার