যশোরে ৪৩তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ‘স্মার্ট ফোনে আসক্তি : পড়াশোনার ক্ষতি’ প্রতিপাদ্যে যশোরে জেলা পর্যায়ে ৪৩তম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ শুরু হয়েছে। জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি যাদুঘরের তত্ত্বাবধানে, জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও জেলা শিক্ষা অফিসের সহযোগিতায় দুই দিনব্যাপী এ আয়োজন করা হয়েছে।
মঙ্গলবার সকালে জিলা স্কুলে এ উপলক্ষে বিজ্ঞান মেলা ও বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড উদ্বোধন করা হয়। বেলুন ফেস্টুন উড়িয়ে উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান।
এ উপলক্ষে যশোর জেলা স্কুল অডিটোরিয়ামে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ও শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা একেএম গোলাম আযম। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মনোয়ার হোসেন। সঞ্চালনা করেন যশোর জিলা স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক জামাল উদ্দিন। উদ্বোধনী পর্ব শেষে জেলা প্রশাসকসহ অতিথিবৃন্দ শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন আবিস্কারগুলো ঘুরে দেখেন।

উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যামিক শিক্ষা কর্মকর্তা এম কামরুজ্জামান জাহাঙ্গীর, যশোর জিলা স্কুল ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শোয়াইব হোসেন, কালেক্টরেট স্কুলের অধ্যক্ষ মোদাচ্ছের হোসেন, শংকরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম বুলবুল প্রমুখ।

জেলা সহকরি শিক্ষা কর্মকর্তা আব্বাস উদ্দিন জানান, যশোর জিলা স্কুলের ৫নং ভবনে দুই দিনব্যাপী এ আয়োজনে প্রকল্প প্রদর্শনী, বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড ও বির্তক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এতে জেলার ৮ উপজেলা থেকে ৫১টি গ্রুপের মৌলিক প্রকল্প উপস্থাপন করা হচ্ছে। এরমধ্যে ২৪টি জুনিয়র গ্রুপ, ২১টি সিনিয়র গ্রুপ ও ৬টি বিশেষ গ্রুপ অংশগ্রহণ করেছে।

এদিকে সরেজমিনে বিজ্ঞান মেলা ঘুরে দেখা যায়- শিক্ষার্থীদের নতুন নতুন উদ্ভাবনী- যার মধ্যে ‘দি ফ্রেন্ড অব রিভার’ নামক প্রজেক্টটি অন্যতম। নওয়াপাড়া শংকর পাশা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র মোহাইমিনুল হক সোয়াদ এটি উদ্ভাবন করেছে। মোহাইমিনুল হক সোয়াদ জানায়, ‘এইটা সোলার পাওয়ার ও নদীর ঢেউ থেকে টারবাইন মাধ্যমে শক্তি উৎপন্ন করে চলে। নদ-নদীর বজ্যসংগ্রহ করে এটা নদী থেকে দূরে নিয়ে ফেলতে সহায়তা করবে।’

আরও দেখা যায় ‘যন্ত্র মানব’। কেশবপুর সরকারি ডিগ্রি কালেজের ৪জন ছাত্র আশরাফুল, রাশেদ, শিমুল ও শাওন এটা উদ্ভাবন করেছেন।

এদিকে এ উপলক্ষে যশোর জিলা স্কুল অডিটোরিয়ামে বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ (বুধবার) এ আয়োজন সেমিনার, কুইজ প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হবে।

শেয়ার