পৌষের শেষ পার্বণে পৌরপার্কে তির্যকের পিঠা উৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ পৌষের শেষ পার্বণে শীতের সন্ধ্যায় যশোর পৌর পার্কে বসে ছিল তির্যক যশোরের আয়োজনে পিঠা উৎসব। এ আয়োজনে বাহরি রং ও পোষাকে মিলিত হয়েছিলেন নবীন ও প্রবীণসহ সব বয়সীরা।

মেলায় জামাই ভুলানো পিঠা, পাটি সাপটা, ভাজা পুলি, ভাপা পুলি, ডিম পিঠা, ঝিনুক পিঠা, পাকান পিঠা, সুজি পিঠা, কাঁঠালি পাতা পিঠাসহ প্রায় ৩৫ প্রকার বাহারি পিঠার পসরা সাজিয়ে রাখা হয় মেলার টেবিলে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উৎসবের উদ্বোধন করেন যশোরের পৌর মেয়র মুক্তিযোদ্ধা হায়দার গণি খান পলাশ। তির্যক যশোরের যুগ্ম সম্পাদক দেবাশীষ রাহার সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইনস্টিটিউটের সাধারণ সম্পাদক ডা. আবুল কালাম আজাদ, যশোর শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহমুদ হাসান বুলু, জেলা পুজা উৎযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তপন ঘোষ, তির্যকের সাধারণ সম্পাদক দীপংকর দাস রতন, পিঠা উৎসবের আহবায়ক আল সুফিয়ান আনন, সদস্য সচিব আলমগীর হোসেন বাবু প্রমুখ।

মেলায় বক্তারা বলেন, ‘আবহমান বাংলার ঐতিহ্য হচ্ছে পিঠা-পুলি, যা ইট পাথরের শহরে হারিয়ে যেতে বসেছে। তাই নতুন প্রজন্মের কাছে হারিয়ে যাওয়া পিঠা-পুলির পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্যই এ আয়োজন।’ তির্যক শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও অতিথিদের পদচারণায় এ পিঠা উৎসব আনন্দমুখর হয়ে উঠে।

শেয়ার