সুন্দরবনে পর্যটকবাহী লঞ্চ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

খুলনা প্রতিনিধি: সুন্দরবনে পর্যটকবাহী লঞ্চ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে বিআইডব্লিউটিএ। তবে ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশনের দাবি, আলোচনার পর ওই নিষেধাজ্ঞা মৌখিকভাবে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এদিকে, সুন্দরবন বিভাগ থেকে বলা হয়েছে, এখনও সুন্দরবন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে তারা কোনও নির্দেশনা দেয়নি।

বিআইডব্লিউটিএ’র খুলনা নদীবন্দর বিভাগের (বন্দর ও পরিবহন) উপপরিচালক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা পেয়ে সুন্দরবনে ভ্রমণে যাওয়া লঞ্চ চলাচলে ১৩ জানুয়ারি থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাময়িকভাবে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। যাত্রীবাহী লঞ্চ এ নির্দেশনার আওতামুক্ত থাকছে।’
সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা (ডিএফও) বেলায়েত হোসেন বলেন, ‘বন বিভাগ থেকে এখনও সুন্দরবন ভ্রমণের বিষয়ে কোনও ধরনের বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়নি। সব এখনও স্বাভাবিক নিয়মে চলছে।’
ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবনের সাধারণ সম্পাদক এম নাজমুল আযম ডেভিড বলেন, ‘আমরা বিআইডব্লিউটিএ’র একটি চিঠি ১২ জানুয়ারি বিকালে পেয়েছি। তাতে সুন্দরবন ভ্রমণে সাময়িক বিরত থাকতে বলা হয়েছে। কিন্তু ১৩ জানুয়ারি বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে আপাতত ওই আদেশ মৌখিকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে তিনি পরে লিখিত চিঠি দেবেন।’
উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতির শুরুতে ২০২০ সালের ২৬ মার্চ থেকে সুন্দরবন ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। কিন্তু পরিস্থিতি কিছুটা শিথিল হলে ওই বছরের ১ নভেম্বর থেকে স্বল্প পরিসরে সুন্দরবন ভ্রমণের সুযোগ দেওয়া হয়। এর সাড়ে সাত মাস পর ফের করোনা পরিস্থিতির অবনতি হলে ২০২১ সালের ৩ এপ্রিল সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশে ফের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। সাড়ে চার মাস বন্ধের পর ২০২১ সালের ১ সেপ্টেম্বর আবারও সুন্দরবন ভ্রমণ শুরু হয়।

শেয়ার