অস্ত্র ও মাদকের পৃথক মামলা বেনাপোল ও শার্শার তিনজন রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের শার্শা ও বেনাপোলে অস্ত্র এবং মাদক মামলার পৃথক তিনজনকে দুইদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার দালাল এই আদেশ দিয়েছেন। আসামিরা হলো, শার্শা উপজেলার হরিশচন্দ্রপুর গ্রামের আয়নাল হকের ছেলে মাসুম বিল্লাহ ও বেনাপোলের কাগমারি গ্রামের মৃত আহম্মেদ খাঁর ছেলে শাহ আলম ও শাহ আলমের ছেলে আরজু ওরফে ইমরান।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ৬ জানুয়ারি শার্শা থানা পুলিশ ইছাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অভিযান চালায়। এ সময় সন্দেহজনকভাবে মাসুম বিল্লাহকে আটক ও তার কাছ থেকে একটি ওয়ান শার্টারগান, এক রাউন্ড গুলি ও ১৯ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। এব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র ও মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে শার্শা থানায় মামলা করে। তদন্ত কর্মকর্তা আসামিকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে সোপর্দ করে। গতকাল বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে বিচারক তাকে দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
অপরদিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ৯ জানুয়ারি বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ সাদীপুরের খেয়াঘাট পাড়ায় অভিযান চালায়। এসময় গ্রামের রাস্তা দিয়ে আসা একটি ইজিবাইক থামিয়ে শাহ আলম, আরজু ওরফে ইমরান ও আক্তারুলকে আটক করা হয়। শাহ আলম ও আরজুর কাছে থাকা ব্যাগ থেকে ৪৪৭ বোতাল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

এব্যাপারে এসআই মাসুম বিল্লাহ বাদী হয়ে আটক তিনজনকে আসামি দিয়ে পোর্ট থানায় মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন। তদন্ত কর্মকর্তা ৫ দিন করে রিমান্ড চেয়ে আটক তিনজনকে আদালতে সোপর্দ করে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারক শুনানি শেষে শাহ আলম ও আরজুর ২ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর ও আক্তারুলের রিমান্ড নামঞ্জুরের আদেশ দিয়েছেন।

শেয়ার