পাকিস্তানে তুষারপাত, গাড়িতে আটকা পড়ে ২১ পর্যটকের মৃত্যু

সমাজের কথা ডেস্ক ॥ পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুরি রিসোর্ট এলাকায় তীব্র তুষারপাতে গাড়ির মধ্যে আটকা পড়ে ২১ পর্যটক মারা গেছেন। এই ঘটনার পর ওই এলাকাকে দুর্যোগ প্রবণ বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। শনিবার (৮ জানুয়ারি) পাকিস্তানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্যাপক তুষারপাতে পাহাড়ের মধ্যে আটকা পড়ে প্রায় এক হাজার গাড়ি। এরপরই পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী দ্রুত উদ্ধার কাজ ও আটকে পড়া পর্যটকদের সহায়তা দেওয়ার নির্দেশ দেন। তাছাড়া খাইবার পাখতুনখোয়ার গাইলিয়াতে গাড়ির প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। উদ্ধারকারী দল জানিয়েছে, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২১ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে নয়জন শিশু রয়েছে।

দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ এক ভিডিও বার্তায় বলেন, তুষারপাতের সময় ওই পাহাড়ি এলাকায় অনেক বেশি পর্যটক ছিল। যা গত ১৫ থেকে ২০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। পরিস্থিতি অত্যন্ত সংকটজনক বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, রাওয়ালপিন্ডি ও ইসলামাবাদ প্রশাসন-পুলিশ আটকে পড়াদের উদ্ধারে কাজ করছেন। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পাঁচ প্লাটুন, একই সঙ্গে রেঞ্জার্স ও ফ্রন্টিয়ার কর্পসকে উদ্ধার কাজের জন্য জরুরি ভিত্তিতে ডাকা হয়। আহমেদ বলেন, মুরির বাসিন্দারা আটকে পড়া পর্যটকদের খাবার, কম্বল সরবরাহ করেছেন। এরই মধ্যে প্রশাসন পাহাড়ি স্টেশনে যাওয়ার সব পথ বন্ধ করে দিয়েছে। এখন কেবল খাবার ও কম্বল নেওয়ার যানবাহনগুলোকে ওই এলাকায় প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।
পাকিস্তানের আবহাওয়া বিভাগ ৬ থেকে ৯ জানুয়ারি মুরি ও গালিয়াতে ভারি তুষারপাতের পূর্বাভাস আগেই দিয়েছিল। তারপরেও একসঙ্গে বহু পর্যটক প্রাণ হারালেন।

শেয়ার