কাশিমপুরে ইউপি নির্বাচনে পুলিশের উপর হামলা মামলায় চারজন গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ গত ৫ জানুয়ারি যশোর সদরের কাশিমপুরে ইউপি নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকালে পুলিশের উপর হামলা মামলার চার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে আটক আজিজুল ইসলাম নামে একজন নেশাগ্রস্থ থাকায় তার বিরুদ্ধে আলাদা মামলা দেয়া হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ি থেকে তাদের আটকের পর শুক্রবারে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আটক আজিজুল ইসলাম সদর উপজেলার ডাকাতিয়া গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে। আটক অন্যরা হলো, একই গ্রামের জহুর আলী মোল্যার ছেলে আশিকুল ইসলাম ও বাবু মোল্যা এবং মৃত গফুর মোল্যার ছেলে মনিরুল ইসলাম।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত ৫ জানুয়ারি যশোর সদর উপজেলার কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকালে জানতে পারেন যে ইউনিয়নের ডাকাতিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পুরুষ ভোট কেন্দ্রে নৌকা সমর্থিত লোকজনের উপর বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আইয়ুব হোসেন ও মেম্বর প্রার্থী ইসলাম সরদারের লোকজন লাঠি, সোটা ও ধারাল অস্ত্রশস্ত্রসহ হামলা চালাচ্ছে। এসময় পুলিশ সেখানে গিয়ে বিএনপি সমর্থিতদের এই হামলা না চালানোর জন্য অনুরোধ করা হয়। এসময় তারা পুলিশের উপর হামলা শুরু করে। এতে কোতোয়ালি থানা পুলিশের কনস্টেবল (১১৭২) ফারুক হোসেন ও কনস্টেবল (৬২৬) জাহাঙ্গীর আলম আহত হয়েছেন। পরে তাদের উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এই ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই সেকেন্দার আবু জাফর ৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো অনেককে আসামি করেন।

এই মামলার পলাতক আসামিরা হলো, ডাকাতিয়া গ্রামের মৃত আনোয়ার সরদারের ছেলে ইসলাম সরদার, ও তার ছেলে মুকুল, দাউদ সরদারের ছেলে মেহেদী, আইয়ুব হোসেনের ছেলে তুহিন, মৃত গণি মোল্যার ছেলে মাজেদ, মৃত রফি মোল্যার ছেলে লিটন ও সিদ্দিক মাস্টারের ছেলে জিহাদ হোসেন।

শেয়ার