পৃথক অভিযোগে ভারতে পাচারকালে আটক ৩
পৌনে ৬ কোটি টাকার স্বর্ণ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ভারতে পাচারের সময় ৮ কেজি ২শ’৩৫ গ্রাম স্বর্ণসহ তিনজনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। শুক্রবার পৃথক অভিযানে এ সফলতা পায় বিজিবি। যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের নতুনহাট এলাকায় একটি মোটরসাইকেল থামিয়ে ইমরান হোসেন ও তৌহিদুল ইসলামকে তল্লাশি করে ৫ কেজি ৮৪০ গ্রাম এবং বেনাপোলের পুটখালী সীমান্ত থেকে ২ কেজি ৩শ’ ৯৫ গ্রাম স্বর্ণসহ কামরুল হাসানকে আটক করে স্থানীয় বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের বারের আনুমানিক মূল্য ৫ কোটি ৭২ লাখ ১৩ হাজার ৯শ’ টাকা।

আটককৃতরা হলেন, নড়াইলের কালিয়া থানার পুরুলিয়া গ্রামের হারিয়াস সরদারের ছেলে ইমরান হোসেন (৩৫), সরণখোলা গ্রামের খোকা মোল্লার ছেলে তৌহিদুল ইসলাম (৪৩) ও পুটখালী গ্রামের কুদ্দুস আলীর ছেলে কামরুল হাসান (২০)।

যশোরস্থ ৪৯ বিজিবির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর আবুল হাসান মো. তৌফিক মাহমুদ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বেনাপোল কোম্পানি সদরে কর্মরত সুবেদার আহসান হাবিবের নেতৃত্বে একটি বিশেষ চোরাচালান বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের নতুনহাট এলাকায় বেনাপোলগামী মোটরসাইকেল (যশোর-ল-১৩-৮৪১৪) থামিয়ে ইমরান ও তৌহিদুলের দেহ তল্লাশি করা হয়। তাদের প্যান্টের নিচে কোমরের মধ্যে বিশেষভাবে লুকিয়ে রাখা ৫০টি সোনার বার পাওয়া যায়। যার ওজন ৫ কেজি ৮৪০ গ্রাম। আনুমানিক মূল্য চার কোটি আট লাখ আশি হাজার টাকা। মামলা দিয়ে তাদের যশোর কোতোয়ালি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

যশোরস্থ ৪৯ বিজিবি কার্যালয়ে কথা হয় স্বর্ণসহ আটক তৌহিদুল ইসলাম ও ইমরান হোসেনের সাথে। তারা জানান, যশোর শহরের দড়াটানা এলাকার ঘোপ মোড় থেকে তারা ওই স্বর্ণ নিয়ে সীমান্তের দিকে যাচ্ছিলেন। তিন হাজার টাকা চুক্তির বিনিময়ে তারা সীমান্ত এলাকা নাভারণে পৌছে দিতে চেয়েছিলেন। ভারত থেকে ফোন করে নাভারণে থাকা ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই তারা বিজিবির হাতে ধরা পড়েন। তারা আরো জানান, এর আগে তিনবার একই কায়দার তারা স্বর্ণ পৌছে দেন।

এদিকে, বিজিবির খুলনা ব্যাটালিয়ন গতকাল যশোরের বেনাপোলের পুটখালী সীমান্ত থেকে ১২টি স্বর্ণের বারসহ একজনকে আটক করেছে। যার ওজন ২ কেজি ৩শ’ ৯৫ গ্রাম। আনুমানিক মূল্য এক কোটি তেষট্টি লাখ তেত্রিশ হাজার নয়শত টাকা।

খুলনাস্থ ২১ বিজিবির অধিনায়ক মোহাম্মদ মনজুর-ই-এলাহী জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে পুটখালী সীমান্ত দিয়ে স্বর্ণের একটি বড় চালান অবৈধভাবে বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচার হচ্ছে। এ তথ্যের ভিত্তিতে খুলনা ব্যাটালিয়ন অধীনস্থ পুটখালী বিওপির টহলদল সীমান্ত পিলার ১৭/৭ এসএর ১৬৮ আর পিলার হতে আনুমানিক ১৫০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে পুটখালী গ্রামস্থ আমবাগানের মধ্যে তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করে। তল্লাশি অভিযানে বিজিবি টহলদল স্বর্ণ পাচারকারীদলের পুটখালী গ্রামের কুদ্দুস আলীর ছেলে কামরুল হাসানকে (২০) ১২টি স্বর্ণের বারসহ আটক করা হয়। আটককৃত স্বর্ণ পাচারকারী এবং স্বর্ণের বার বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

শেয়ার