৪ হাজার রান ও ২০০ উইকেটের ডাবলে দ্রুততম সাকিব

সমাজের কথা ডেস্ক॥ প্রথম ইনিংসে ফলোঅন এড়াতে যথেষ্ট হয়নি সাকিব আল হাসানের লড়াই। দ্বিতীয় ইনিংসে ম্যাচ বাঁচাতে তিনিই আশা হয়ে ছিলেন। কিন্তু পারেননি। মিরপুর টেস্টে লড়াকু দুই ইনিংসের সৌজন্যে ৪ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করলেন বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার, সঙ্গে নিজের করে নিলেন আরেকটি বিশ্ব রেকর্ড। টেস্টে ৪ হাজার রান ও ২০০ উইকেটের ডাবলে ছাড়িয়ে গেলেন ইয়ান বোথামকে।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বুধবার টেস্টের পঞ্চম দিনে এই কীর্তি গড়েন সাকিব। সাজিদ খানের বলে দারুণ ড্রাইভে বাউন্ডারি মেরে পা রাখেন টেস্ট ক্যারিয়ারের ৪ হাজার রানে।

টেস্টে ২১৫টি উইকেট আছে সাকিবের। ৪ হাজার রান ও ২০০ উইকেটের ‘ডাবল’ তিনি পূর্ণ করলেন টেস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুততায়। ৫৯ টেস্টে ধরা দিল তার এই অর্জন। ৬৯ টেস্টে এই ডাবল ছুঁয়ে আগের রেকর্ড ছিল ইংলিশ কিংবদন্তি ইয়ান বোথামের। এর আগে ২০১৮ সালে তাকে ছাড়িয়েই ৩ হাজার রান ও ২০০ উইকেটের ডাবলের বিশ্ব রেকর্ড গড়েন সাকিব।

সাকিব ও বোথাম ছাড়া ৪ হাজার রান ও ২০০ উইকেটের ডাবল আছে আর কেবল ৪ জনের-জ্যাক ক্যালিস, গ্যারি সোবার্স, কপিল দেব ও ড্যানিয়েল ভেটোরির।
বাংলাদেশের তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে সাকিব পেলেন ৪ হাজার রানের দেখা। তার আগে এই মাইলফলকের দেখা পেয়েছেন তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম।
৩ হাজার রান ও ২০০ উইকেটের ডাবল সাকিব ছুঁয়েছিলেন ৫৪ টেস্টে। ৫ টেস্ট পরেই আরেকটি ডাবলের রেকর্ড ধরা দিল তার হাতে।
৩ হাজার ৯৩৩ রান নিয়ে সাকিব শুরু করেন পাকিস্তানের বিপক্ষে মিরপুর টেস্ট। প্রথম ইনিংসে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে করেন ৩৩ রান।

শেয়ার