যশোরের অভয়নগরে ইউপি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা

 চেয়ারম্যান পদে ৫৯, সংরক্ষিত ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৭৯ প্রার্থী

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি ॥ আগামী ২৬ ডিসেম্বর ৪র্থ ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যশোরের অভয়নগর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত ও সাধারণ ওয়ার্ডে সদস্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দান শেষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বিকাল ৫ টা পর্যন্ত ছিল মনোনয়নপত্র জমা দানের শেষ সময়।
উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫৯ জন, সংরক্ষিত ও সাধারণ ওয়ার্ডে সদস্য পদে ৩৭৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। প্রতিটি ইউনিয়নে সংরক্ষিত ওয়ার্ড ৩টি ও সাধারণ ওয়ার্ড ৯টি।

প্রেমবাগ ও সুন্দলী ইউনিয়নের রিটার্নিং অফিসার উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এস এম হাবিবুর রহমান জানান, ১নং সুন্দলী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১২ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ২৮ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ২নং সুন্দলী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১১ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ২৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

চলিশিয়া ও পায়রা ইউনিয়নের রিটার্নিং অফিসার উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম জানান, ৩নং চলিশিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১২ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ৪নং পায়রা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৯ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

শ্রীধরপুর ও বাঘুটিয়া ইউনিয়নের রিটার্নিং অফিসার উপজেলা বিআরডিবি কর্মকর্তা মো. মেহেদী হাসান জানান, ৫নং শ্রীধরপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১০ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ৬নং বাঘুটিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১২ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৪৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

শুভরাড়া ও সিদ্ধিপাশা ইউনিয়নের রিটার্নিং অফিসার উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মাসুদ করিম জানান, ৭নং শুভরাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১২ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৩৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ৮নং সিদ্ধিপাশা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭ জন, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১৭ জন ও সাধারণ ওয়ার্ডে ৪১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

জানা গেছে, উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সহ জাতীয় পার্টি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে। স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর সংখ্যাই বেশি। আগামী ২৬ ডিসেম্বর এ উপজেলার ইউনিয়নগুলোতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

শেয়ার