মোল্লাহাটে ভার্মি কম্পোস্ট উদ্যোক্তা তৈরির প্রশিক্ষণ সম্পন্ন

বাগেরহাট প্রতিনিধি ॥ বাগেরহাটের মোল্লাহাটে পুষ্টি উন্নয়নে স্বাস্থকর খাদ্য/ফসল উৎপাদনের লক্ষে গত ২১-২৪ নভেম্বর ৪ ব্যাচের মোট ১০০ জন লিড ফার্মারদের নিয়ে ভার্মি কম্পোস্ট উদ্যোক্তা তৈরি বিষয়ক প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের সহায়তা ও কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড-এর নেতৃত্বে এবং উন্নয়ন সংস্থা জেজেএস এর উদ্যোগে ‘পুষ্টি উন্নয়নে অংশ গ্রহণমূলক সমন্বিত প্রকল্প’র আওতায় বৃহস্পতিবার আড়াই টায় মোল্লাহাট উপজেলা অফিসার্স ক্লাবে প্রকল্পের উপকারভোগী ও লিড ফার্মারদের নিয়ে ভার্মি কম্পোস্ট উদ্যোক্তা তৈরি বিষয়ক এই প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন-মোল্লাহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার ওয়াহিদ হোসেন। এছাড়া কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড, বাগেরহাট এর লাইভলিহুড এ্যান্ড প্রাইভেট সেক্টর স্পেশালিস্ট মোক্তার হোসেন এবং ইরাস ভেঞ্চার লিমিটেডের পরিচালক ইছাহক আলী প্রশিক্ষণে সহায়কের দায়িত্ব পালন করেন।

প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ওয়াহিদ হোসেন বলেন, আপনারা সকলে এই প্রশিক্ষণ শেষে এলাকায় যেয়ে একজন উদ্যোক্তা হিসেবে প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান বাস্তবে প্রয়োগ করে ভার্মি কম্পোস্ট (কেঁচো সার) উৎপাদন, নিজের প্রয়োজন মেটানো এবং বাণিজ্যিক উৎপাদনে নিজেকে সম্পৃক্ত করবেন। নিজে স্বাবলম্বি হবেন এবং একই সাথে অর্থনৈতিক উন্নয়নের মাধ্যমে পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার ক্রয় এবং পরিবারের পুষ্টি চাহিদা নিশ্চিতে ভূমিকা রাখবেন।

গত ২১ থেকে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ৪ ব্যাচের এই প্রশিক্ষণে উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন থেকে প্রকল্পের ৮৪ জন নারী উপকার ভোগী ও ১৬ জন পুরুষ লিড ফার্মারসহ মোট ১০০ জন অংশ গ্রহণ করবেন। প্রশিক্ষণ শেষে অংশ গ্রহণকারীদের প্রত্যেককে ভার্মি কম্পোস্ট/জৈব সার উৎপাদনের প্রয়োজনীয় উপকরণ সরবরাহ করা হয়।
উল্লেখ্য, কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইড’র নেতৃত্বে ইউরোপীয় ইউনিয়ন-এর অর্থায়নে ওয়াটার এইড, রূপান্তর ও জেজেএস’র সমন্বয়ে গঠিত কোস্টাল কনসোর্টিয়ামের মাধ্যমে বাগেরহাট জেলার উপকূলীয় চারটি উপজেলায় (মোল্লাহাট, কচুয়া, মংলা ও শরণখোলা) সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর পুষ্টির সার্বিক উন্নয়নে এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে।

শেয়ার