পৌরসভায় আর মাথাভারী প্রশাসন থাকবে না : স্বপন ভট্টাচার্য্য

বিভাগীয় পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেছেন, ‘পৌরসভায় আর মাথাভারী প্রশাসন থাকবে না। প্রয়োজনের বাইরে কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ দেয়া যাবে না। পৌর প্রশাসনকে আরো বেগবান করতে সুষ্ঠু নীতিমালা প্রণয়ন করা হবে। পৌরসভার প্রতি বর্তমান সরকারের সবচেয়ে বেশি নজর রয়েছে। বরাদ্দের হারও বেশি দেয়া হচ্ছে। তাই সরকারের নজরদারিও কঠোরভাবে করা হবে। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বকেয়া থাকবে না। সুপরিকল্পিত নগর গড়ার ব্যাপারেও কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। পৌরসভার যথাযোগ্য সম্মান ফিরিয়ে আনা হবে।’

বৃহস্পতিবার যশোর শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে খুলনা বিভাগীয় পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি একথা বলেন। সংগঠনের বিভাগীয় আহ্বায়ক মুস্তাক আহমেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু’র আদর্শ মেনে দেশ পরিচালিত হচ্ছে। সেই আদর্শ নিয়ে শেখ হাসিনা লড়াই করে যাচ্ছেন। তাই তো দেশের এতো উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহের পৌর মেয়র সাইদুর করিম মিন্টু, নড়াইলের পৌর মেয়র আঞ্জুমানারা, কালীগঞ্জের পৌর মেয়র আশরাফুল আলম, কালিয়া পৌর মেয়র ওয়াহিদুজ্জামান হীরা, পাইকগাছা পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর। অনুষ্ঠানের উদ্বোধক ছিলেন পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল আলিম। প্রধান বক্তা ছিলেন পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী আব্দুস সাত্তার। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, যশোর পৌরসভার প্যানেল মেয়র মোকসিমুল বারী অপু প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন যশোর পৌরসভার সচিব আজমল হোসেন। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় অধিবেশনে পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন খুলনা বিভাগীয় আহ্বায়ক কমিটির আহ্বায়ক মুস্তাক আহমেদকে সভাপতি, সদস্য সচিব তাসমিন আলী লিলিকে সাধারণ সম্পাদক ও যশোর পৌরসভা হিসাবরক্ষক আব্দুল হান্নানকে সাংগঠনিক সম্পাদক মনোনীত করা হয়েছে। তাদের ওপর পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

শেয়ার