ভারতে পাচারের শিকার তরুণীকে বেনাপোল ইমিগ্রেশনে হস্তান্তর

বেনাপোল প্রতিনিধি॥ ভালো কাজের প্রলোভনে ভারতে পাচার হওয়া রতনা আক্তার নামে এক বাংলাদেশি তরুণীকে ফেরত পাঠিয়েছে ভারতীয় পুলিশ।

বুধবার বিকালে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ ট্রাভেল পারমিটে তাকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। ফেরত আসা নারী যশোরের জনৈক জামাল হোসেনের মেয়ে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রাজু জানান, ইমিগ্রেশনে কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তরুণীকে বেনাপোল বন্দর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। সেখান থেকে আইনী সহয়াতা দিতে জাস্টিস এন্ড কেয়ার এনজিও গ্রহণ করেছে।

জাস্টিস এন্ড কেয়ারের সিনিয়ার প্রোগ্রামার অফিসার মুহিত হোসেন জানান, সংসারে অভাব অনটনের সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন সময় ভাল কাজের কথা বলে দালালরা তাকে ভারতে পাচার করে। পরে ভাল কাজ না দিয়ে প্রতারণা করে। এক পর্যায়ে ভারতীয় পুলিশ অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে তাদের আটক করে আদালতে পাঠায়। সেখান থেকে তাদের আশ্রয় হয় ভারতীয় এনজিও সংস্থার শেল্টার হোমে। পরে উদ্ধারকৃতরা বাংলাদেশি কিনা তা যাচাই করে কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ট্রাভেল পারমিটে এরা ফিরে আসছে। এদের আইনী সহয়তা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য কাজ করবে এনজিও সংস্থা জাস্টিস এন্ড কেয়ার।

শেয়ার