নড়াইলে হত্যা মামলায় একমাত্র আসামির যাবজ্জীবন কারাদন্ড

নড়াইল প্রতিনিধি॥ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ইতনা গ্রামের ইসমাইল ওরফে ঠান্ডু সরদার হত্যা মামলায় সৈয়দ পলাশ ওরফে পলাশ মিনা নামে এক আসামির যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে নড়াইলের জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী মোঃ মশিয়ার রহমান এই আদেশ দেন। এছাড়া দন্ডপ্রাপ্ত মিনাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালতের বিচারক।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামি মিনা লোহাগড়া উপজেলার ইতনা মধ্যপাড়ার শাহাজাহান মিনার ছেলে। রায় ঘোষণার সময় আসামি উপস্থিত ছিলেন।

নড়াইল জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট ইমদাদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
মামলার বিরবণে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২২ জানুয়ারি সন্ধ্যার দিকে নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলার ইতনা মধ্যপাড়ার শাহাজাহান মিনার ছেলে সৈয়দ পলাশ ওরফে পলাশ মিনা পরকীয়া ঘটনার জের ধরে ইসমাইল ওরফে ঠান্ডু সরদারকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে হত্যা করেন। পরদিন ২৩ জানুয়ারি দুপুর ১২টার দিকে ইতনা মধ্যপাড়া গার্লস স্কুল সংলগ্ন মফিজ শেখের মসুরি ও পেঁয়াজ ক্ষেতের মধ্যে ঠান্ডুর লাশ পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেন স্থানীয়রা। এ ঘটনায় ঠান্ডুর মা গোলাপী বেগম বাদী হয়ে লোহাগড়া থানায় সৈয়দ পলাশ ওরফে পলাশ মিনাকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে আসামি সৈয়দ পলাশ ওরফে পলাশ মিনা আদালতে দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তদন্ত শেষে পুলিশ সৈয়দ পলাশ ওরফে পলাশ মিনার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। এ মামলায় ১০জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে সৈয়দ পলাশ ওরফে পলাশ মিনা দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ দেন আদালত।

শেয়ার