অভয়নগরের যুবকের মালয়েশিয়ায় মৃত্যু

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি॥ যশেরের অভয়নগর উপজেলার বাশুয়াড়ী গ্রামের কাঁচামাল বিক্রেতা ইলিয়াজ হোসেন। সংসারের অভাব লাঘবে ধার-দেনা করে একমাত্র ছেলে হেদায়েত হোসেনকে ২০ মাস আগে মালয়েশিয়ায় পাঠান। মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) জানতে পারেন হেদায়েত ব্রেনস্ট্রেকে মারা গেছে। এই খবরে নির্বাক বাবা এখন ছেলের মরদেহ ফিরে পেতে সরকারি সহযোগিতা চেয়েছেন।

পুত্রহারা পিতা ইলিয়াজ হোসেন জানান, আমার অভাবের সংসার। ছেলের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে বিভিন্ন সমিতি ও আত্মীয়-স্বজনদের নিকট থেকে ধার-দেনা করে এক বছর ৮ মাস আগে ছেলেকে মালয়েশিয়ায় পাঠিয়েছিলাম। সেখানে একটি কোম্পানিতে শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিল হেদায়েত। মঙ্গলবার বিকালে তার এক সহকর্মীর মাধ্যমে জানতে পারি আমার ছেলে আর বেঁচে নেই।

তিনি আরো বলেন, আমার হেদায়েতের মৃত্যুর খবর যার মাধ্যমে জানতে পেরেছি সে বলেছে, ২০ নভেম্বর সন্ধ্যায় কর্মস্থল থেকে ফেরার পর হেদায়েত অসুস্থ হয়ে পড়ে। সহকর্মীরা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। মস্তিস্কে অধিক রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার সরেজমিনে উপজেলার শুভরাড়া ইউনিয়নের বাশুয়াড়ী গ্রামে গিয়ে দেখা গেছে, মৃত হেদায়েত হোসেনের বাড়িতে গ্রামবাসী ও আত্মীয়-স্বজনরা ভিড় করে আছেন। হেদায়েতের বাকরুদ্ধ পিতা-মাতা মোবাইল ফোনে বার বার ছেলের ছবি দেখছেন আর কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছেন। এসময় হেদায়েতের পিতা একমাত্র ছেলের মরদেহ ফিরে পেতে সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন।

শেয়ার