সারাদেশে ৮৪০ ইউপিতে নির্বাচন ২৩ ডিসেম্বর ৪র্থ ধাপে খুলনা বিভাগের ৭৮ ইউনিয়নে ভোট

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের চতুর্থ ধাপে দেশের ৮৪০ ইউপিতে ২৩ ডিসেম্বর ভোট হবে। একই সঙ্গে ভোট হবে নবম ধাপের তিন পৌরসভাতেও। এই ধাপে খুলনা বিভাগের ৮ জেলার ১০ উপজেলার ৭৮ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে যশোরের অভয়নগর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নও রয়েছে। বুধবার নির্বাচন কমিশনের সভা শেষে ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার এই ধাপে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। তার আগে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে কমিশনের ৮৯তম সভায় এর অনুমোদন দেওয়া হয়।

তফসিল অনুযায়ী, ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে চেয়ারম্যান, সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া যাবে। মনোনয়নপত্র বাছাই ২৯ নভেম্বর ও প্রত্যাহারের শেষ সময় ৬ ডিসেম্বর।

চতুর্থ ধাপে ৩৩ ইউনিয়ন পরিষদে ইভিএমে ভোট নেওয়া হবে। বাকিগুলোয় ভোট নেওয়া হবে প্রচলিত ব্যালট পেপারে। এছাড়া পৌরসভার ভোটও ইভিএমে হবে।
টেকনাফ, রায়পুরা ও আটঘরিয়া এই তিনটি পৌরসভার ক্ষেত্রেও মনোনয়নপত্র জমা, বাছাই, প্রত্যাহারের শেষ সময় একই রকম রাখা হয়েছে বলে জানান ইসি সচিব।
দেশে প্রায় সাড়ে চার হাজার ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। ধাপে ধাপে ভোটের মাধ্যমে ডিসেম্বরের মধ্যে নির্বাচন উপযোগী সব ইউপির ভোট শেষ করার পরিকল্পনা করেছে ইসি।
প্রথম ধাপে ২১ জুন ২০৪ ইউপি ও ২০ সেপ্টেম্বর ১৬০ ইউপির ভোট হয়। দ্বিতীয় ধাপে ৮৪৬ ইউপির ভোট হবে ১১ নভেম্বর। তৃতীয় ধাপে ১০০৩ ইউপির ভোট হবে ২৮ নভেম্বর। চতুর্থ ধাপের ভোট হবে ৮৪০ ইউপিতে ২৩ ডিসেম্বর।

এই ধাপে খুলনা বিভাগের ৮ জেলার ১০ উপজেলার ৭৮ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে যশোরের অভয়নগর উপজেলার ৮টি ইউনিয়নও রয়েছে। এছাড়াও কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার ৯টি ও কুমারখালী উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন, চুয়াডাঙ্গা সদরের ৪টি, ঝিনাইদহ সদরের ১৫টি, মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার ৮টি, নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ১২টি, খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার জলমা, সাতক্ষীরার তালা উপজেলার কুমিরা এবং শ্যামনগর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ এই ধাপে অর্থাৎ ২৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

শেয়ার