হার দিয়েই বাছাই শেষ বাংলাদেশের যুবাদের

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ম্যাচ জুড়ে খেলা হলো বাংলাদেশের অর্ধে। সৌদি আরবের চাপ সামলে তেমন কোনো আক্রমণই শানাতে পারেননি মাহবুবুর রহমান সুফিল-ফয়সাল আহমেদ ফাহিমরা। এএফসি অনূর্ধ্ব-২৩ এশিয়ান কাপের বাছাই মারুফুল হকের দল শেষ করল আরেকটি হার দিয়ে।

উজবেকিস্তানের বুনিয়দকর স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার ৩-০ গোলে হারে বাংলাদেশ। কুয়েতের কাছে ১-০ গোলে হেরে ‘ডি’ গ্রুপের বাছাই শুরু করা দল দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক উজবেকিস্তানের কাছে বিধ্বস্ত হয় ৬-০ গোলে।

বরাবরের মতো সৌদি আরবের বিপক্ষে ম্যাচেও শুরু থেকে রক্ষণ সামলাতে ব্যস্ত থাকে বাংলাদেশ। ত্রয়োদশ মিনিটে আইমান ইয়াহিয়া আহমেদের ফ্রি কিক ফিস্ট করে ফিরিয়ে দলের ত্রাতা গোলরক্ষক মিতুল হোসেন। বক্সের একটু বাইরে মানিক হোসেন মোল্লা ফাউল করলে ফ্রি কিক পেয়েছিল সৌদি আরব।

দুই মিনিট পর প্রথম গোলটি হজম করে বাংলাদেশ। সতীর্থের ক্রসে অনেকটা লাফিয়ে উঠে সৌদ আব্দুল্লাহ আব্দুলহামিদের নেওয়া হেড আটকাতে পারেননি মিতুল।

১৯তম মিনিটে আইমানের ফ্রি কিক মিতুল ফিস্ট করে ফেরালেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি। বক্সের ভেতর থেকে ডান পায়ের বুলেট গতির কোনাকুনি শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন জায়েদ আলমোবারক আলজোহানি। একটু পরই মিতুলকে তুলে গোলরক্ষক পাপ্পু হোসেনকে নামান কোচ।

৬৯তম মিনিটে ডান দিকে দিয়ে বক্সে ঢুকে পড়া সতীর্থের কাট ব্যাকে আইমান প্লেসিং শটে লক্ষ্যভেদ করলে বাংলাদেশের ঘুরে দাঁড়ানোর আশা শেষ হয়ে যায় অনেকটাই। দলের হারের ব্যবধান আরও বাড়তে পারত। শেষ দিকে সৌদি আরবের একটি শট প্রতিহত হয় পোস্টে লেগে।

ঢাকা ছাড়ার আগে সেরা চার গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে মূল পর্বে ওঠার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ মারুফুল। কিন্তু মাঠের খেলায় তার প্রতিফলন পড়েনি একটুও। জয়, ড্র তো দূর অস্ত, তিন ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ প্রতিপক্ষের জালে কোনো গোলই পায়নি!

 

শেয়ার