যশোরে জাল কাবিননামা তৈরির অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তাসহ ৪ জনের নামে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ জালজালিয়াতি করে কাবিননামা তৈরির অভিযোগে ব্যাংক কর্মকর্তা ও তার আইনজীবী পিতাসহ চারজনকে আসামি করে যশোর আদালতে মামলা হয়েছে। রোববার বাঘারপাড়ার ভিটেবল্লা গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে ইমদাদুল কবির মিঠু বাদী হয়ে এ মামলা করেছেন। অতিরিক্তি চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মারুফ আহমেদ অভিযোগের তদন্ত করে পিবিআইকে প্রতিবেদন জমা দেয়ার আদেশ দিয়েছেন।

আসামিরা হলো ঝিনাইদহ শহরের আব্দুল সড়কের বেপারি পাড়ার আইনজীবী খাঁন আকরাম হোসেন, তার স্ত্রী শামিমা ইয়াসমিন, মেয়ে ব্যাংক এশিয়া ঝিনাইদহ শাখার কর্মকর্তা নুসরাত জেরিন ও কালীগঞ্জ’র নিয়ামতপুর ইউনিয়নের কাজী জুলফিকার আলম।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ইমদাদুল কবির মিঠু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া শেষ করে যশোরে ব্যবসা করেন। ২০০৯ সালে তিনি নুসরাত জেরিনকে বিয়ে করেন। তাদের দুইটি সন্তান আছে। নুসরাত বর্তমানে এশিয়া ব্যাংক ঝিনাইদহ শাখায় জুনিয়র অফিসার হিসেবে কর্মরত আছেন। ঝিনাইদাহ শহরে নুসরাত জেরিনের ৫ শতক জমি আছে। এ জমিতে বাড়ি করে দেয়ার জন্য তার স্বামীর উপর চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি হয়। মিঠু স্ত্রী সন্তান নিয়ে সংসার করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এক মাস আগে মিঠু ঝিনাইদহ আদালত থেকে একটি নোটিশ পান। যার নম্বর ৭৭/২১। এ মামলার নকল তুলে মিঠু দেখতে পান আসামিরা কাবিননামায় জালজালিয়াতির আশ্রয় নিয়েছে। এরপরও মিঠু বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে আদালতে এ মামলা করেছেন।

শেয়ার