কুমিল্লাসহ বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় নাগরিক সমাজের মানববন্ধন

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ॥ কুমিল্লার দুর্গা মন্ডপে কোরআন শরীফ রাখা গুজবের জের হিসেবে বিভিন্ন স্থানে সহিংসতা সৃষ্টির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সাতক্ষীরার সম্মিলিত নাগরিক সমাজ। তারা এসব ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ উল্লেখ করে মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কোন ব্যক্তি বা কোন চক্র উদ্দেশ্যমূলকভাবে এঘটনা ঘটিয়ে হিন্দু ও মুসলিম দুটি ভ্রাতৃপ্রতিম সম্প্রদায়ের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টির চেষ্টা করেছে। তারা নিজেদের ফায়দা হাসিল করার লক্ষ্যে এ ঘটনা চাপিয়ে দিয়েছে সমাজের ওপর। একইসাথে এসব নিয়ে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির অপপ্রচার চালিয়ে দেশকে অশান্ত করার চেষ্টা করছে মহলটি। এদের সকলকে চিহ্নিত করে ধর্মীয় শান্তি বজায় রাখার জোর দাবি জানিয়েছেন তারা।

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে রোববার দুপুরে নাগরিক সমাজের এই মানববন্ধনে জেলা মন্দির সমিতির সভাপতি বিশ^নাথ ঘোষের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন স্বদেশ পরিচালক মাধব চন্দ্র দত্ত, জাসদ নেতা ওবায়দুস সুলতান বাবলু, জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক অধ্যক্ষ আনিসুর রহিম, সাংবাদিক মমতাজ আহমেদ বাপী, কল্যাণ ব্যানার্জী, জেলা মন্দির সমিতির সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার শীল, মহিলা পরিষদ সভানেত্রী আঞ্জুয়ারা বেগম, সম্পাদক জোসনা দত্ত, লুইস রানা গাইন, সুধাংশু শেখর সরকার, নিত্যানন্দ সরকার, তাপস দাস প্রমুখ সুধীজন। তারা অবিলম্বে ধর্মীয় অবমাননাকারী এবং সহিংসতা সৃষ্টিকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের দাবি জানান।

শেয়ার