সুন্দরবনে অবৈধ উপায়ে মাছ ও কাঁকড়া ধরার ১১ জেলে আটক

আব্দুল জলিল, সাতক্ষীরা॥ সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে অবৈধ উপায়ে মাছ কাঁকড়া ধরার সময় পৃথক দুই স্থান থেকে ১১ জেলেকে আটক করেছে সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জের পশ্চিম বন বিভাগ।

সুন্দরবনের পশ্চিম বন বিভাগের সাতক্ষীরা রেঞ্জের বুড়িগোয়ালিনী স্টেশনের (স্টেশন অফিসার) এসও সুলতান আহমেদ জানান, দোবেকি বন টহল ফাঁড়ি এলাকার ভাইটব খাল থেকে অবৈধ উপায়ে ফাঁস জাল, কল জাল, খালপাটা জাল দিয়ে সুন্দরবনের প্রবেশ ও মাছ ধরায় নিষিদ্ধ অভয়ারণ্য এলাকায় অবৈধ পন্থায় মাছ কাঁকড়া আহরণ করার সময় সাতজনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা খুলনার কয়রা উপজেলার বাসিন্দা। তারা হলেন, জাহিদুল মোল্লা (৩৮), আজিজুল ইসলাম (২৪), কামরুল ইসলাম (৪২), কবির হোসেন (৪৫), শাজাহান সানা (৩৩), শরিফুল ইসলাম (২৮) ও এনামুল মোল্লা (২৮)। এদেরকে আটক করে বুধবার রাতে বুড়িগোয়ালিনী ফরেস্ট স্টেশনে নিয়ে আসা হয়। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় দুটি ফাঁসজালসংযুক্ত নৌকা। এছাড়া অতিরিক্ত ফাঁস জাল, কল জাল, খাল পাটা জাল উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান, একই ভাবে পৃথক অভিযানে রায়মঙ্গল নদী সংযুক্ত ছায়া নদীর মুখ থেকে অবৈধ পন্থায় মাছ কাঁকড়া আহরণের সময় আরও চারজনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা প্রত্যেকে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বাসিন্দা। তারা হলেন কালিঞ্চি গ্রামের আব্দুল জলিল, রাশিদুল ইসলাম, তাপস গাইন ও সোরা গ্রামের জহুর আলী। তাদের কাছ থেকেও অনুরূপ জাল সম্মৃদ্ধ একটি নৌকা আটক করা হয়।

শেয়ার