চাঁদাবাজির অভিযোগে যশোর সিআইডির দারোগার বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ চাঁদাবাজির অভিযোগে যশোর সিআইডি পুলিশের দারোগা খান মোহাম্মদ ইনামুল হাসানের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা হয়েছে। গতকাল রোববার ঝিকরগাছা উপজেলার পুরন্দপুর গ্রামের রবিউল ইসলামের শরিফুল ইসলাম যশোর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলা করেন। অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মারুফ আহমেদ মামলাটি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) নির্দেশ দিয়েছেন। এদিকে এই মামলায় অভিযুক্ত দারোগা খান মোহাম্মদ ইনামুল হাসান বলেছেন, শরিফুল ইসলাম নামে কোন ব্যক্তিকে আমি চিনিনা। ফলে তার কাছ কোন লেনদেনের সুযোগ নেই।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, বাদী শরিফুল ইসলাম ঝিকরগাছা উপজেলার পুরন্দরপুর গ্রামের রবিউল ইসলমের ছেলে এবং ফিউচার আউট সোর্সিং প্রাইভেট লিমিটেডের ডাইরেক্টর। যশোর শহরের খোলাডাঙ্গা সার গোডাউনের পাশে ফিউচার আউট সোর্সিং প্রাইভেট লিমিটেডের প্রধান কার্যালয়। এই মামলার বিবাদী যশোর সিআইডি পুলিশের এএসআই খান মোহাম্মদ ইনামুল হাসান। গত ২৬ সেপ্টেম্বর বিবাদী শরিফুল ইসলামের অফিসে গিয়ে প্রতিষ্ঠানকে ভুয়া বলে কর্মীদের সাথে উচ্ছৃঙ্খল ও খারাপ আচরণ করেন। এরপর প্রতিষ্ঠানের ডাইরেক্টর শরিফুল ইসলামের কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদার টাকা না দিলে অফিসে সিলগালা ও ডাইরেক্টরকে ক্রসফায়ারের দেয়ার হুমকি দেন। পরদিন ভয়ে নিজস্ব^ মোবাইলের বিকাশ নম্বর থেকে আসামির নিজস্ব^ ০১৭১০০১৪৪৬৬ নম্বরে ২৫শ’ টাকা ও ২৯ সেপ্টেম্বর আবারও ২৫শ’ টাকা বিকাশ করেন। এরপর আসামি খান মোহাম্মদ ইনামুল হাসান বাকি ৪৫ হাজার টাকার জন্য ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময় দেন। চাঁদার বাকি টাকা না দেয়ায় ফোনে হুমকি দেয়ায় তিনি আদালতে মামলা করেছেন।

অপরদিকে আসামি যশোর সিআইডি পুলিশের এএসআই খান মোহাম্মদ ইনামুল হাসান বলেছেন, শরিফুল ইসলাম নামে কোন ব্যক্তিকে আমি চিনিনা। ফলে তার কাছ কোন লেনদেনের সুযোগ নেই।

 

শেয়ার