বাগেরহাটে ৬৩ ইউনিয়নে নৌকা, দুটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর জয়

কামরুজ্জামান, বাগেরহাট ॥ বাগেরহাটে অনুষ্ঠিত ৬৫টি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে ২৭টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হয়েছে। এর মধ্যে মোরেলগঞ্জে ১৪টি, রামপালে ৪টি, কচুয়ায় ২টি, চিতলমারী ৩টি, ফকিরহাটে ৩টি এবং শরণখোলায় একটি ইউনিয়ন রয়েছে।

কচুয়া উপজেলার দুই ইউনিয়নে নৌকার বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন, ধোপাখালিতে শেখ মকবুল হোসেন এবং মঘিয়ায় পঙ্কজ কান্তি অধিকারি।

মোরেলগঞ্জে ১৪টি ইউনিয়নের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১২টিতে নৌকা এবং দুইটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। নৌকার বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন, দৈবজ্ঞহাটি সামছু মল্লিক, বনগ্রামে রিপন দাস, বলইবুনিয়ায় শাহজাহান আলী, পঞ্চকরনে রাজ্জাক মজুমদার, হোগলাবুনিয়ায় মোঃ আকরামুজ্জামান, মোরেলগঞ্জ সদরে হুমায়ুন কবির মোল্যা, তেলিগাতী ইউনিয়নে মোরশেদা আক্তার, পুটিখালীতে আব্দুর রাজ্জাক, রামচন্দ্রপুর আব্দুল আলিম, জিউধরায় জাহাঙ্গীর আলম বাদশা, চিংড়াখালী ইউনিয়নে আলী আক্কাচ বুলু এবং বহরবুনিয়ায় রিপন তালুকদার। বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থীরা হলেন-হোগলাপাশা ইউনিয়নে যুবলীগ নেতা মোঃ ফরিদুল ইসলাম এবং বারইখালী ইউনিয়নে আব্দুল আউয়াল খান মহারাজ।

চিতলমারী উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে নৌকার বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন-বড়বাড়িয়ায় মোহাম্মাদ মাসুদ সরদার, সদর ইউনিয়নে মোঃ নিজাম উদ্দিন শেখ এবং কলাতলায় মোঃ বাদশা মিয়া।
ফকিরহাটে তিনটি ইউনিয়নে নৌকার বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন-লখপুরে এমডি সেলিম রেজা, বাহিরদিয়ায় রেজাউল করিম ফকির এবং শুভদিয়ায় মোঃ ফারুকুল ইসলাম।
শরণখোলা উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী মাইনুল ইসলাম টিপু বিজয়ী হয়েছেন।
রামপালের চারটি ইউনিয়নে নৌকার বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন-বাইনতলায় ফকির আব্দুল্লাহ, উজুলকুরে মুন্সি বোরহান উদ্দিন, গৌরম্বায় মোঃ রাজিব সরদার এবং পেরিখালি ইউনিয়নে রফিকুল ইসলাম বাবুল।
এরআগে বাগেরহাটের ৩৮টি ইউনিয়নে যারা বিনা প্রতিদ্বন্দি¦তায় নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন- মোংলা উপজেলার বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নে উদয় শংকর বিশ্বাস, চাঁদপাই ইউনিয়নে মোল্লা মোঃ তারিকুল ইসলাম, মিঠাখালী ইউনিয়নে উৎপল মন্ডল, সোনাইলতলা ইউনিয়নে নাজরিনা বেগম, সুন্দরবন ইউনিয়নে ইকরাম ইজারাদার, চিলা ইউনিয়নে গাজী আকবর হোসেন ।
সদর উপজেলার বেমরতা ইউনিয়নে মনোয়ার হোসেন টগর, ডেমা ইউনিয়নের মনি মল্লিক, বিষ্ণপুর ইউনিয়নের বাবুল পাইক, বারুই পাড়া ইউনিয়নে হায়দার আলী মোড়ল, রাখালগাছি ইউনিয়নে আবু শামিম হাসনু, কাড়াপাড়া ইউনিয়নে মহিতুর রহমান পল্টন, খানপুর ইউনিয়নে ফহম উদ্দিন ফকির।
কচুয়া উপজেলার রাড়িপাড়া ইউনিয়নে আসমা আক্তার, বাধাল ইউনিয়নে নকিব ওহিদুল ইসলাম, গোপালপুর ইউনিয়নে এসএস আবু বক্ক্র সিদ্দিক, গজালিয়া ইউনিয়নে মোঃ নাসির উদ্দিন। চিতলমারী উপজেলার সন্তোষপুর ইউনিয়নের বিউটি আক্তার, চরবনিয়ারী ইউনিয়নের অর্চনা বড়াল, হিজলা ইউনিয়নে শাহিন কাজী, শিববপুর ইউনিয়নের অলিউজ্জামান জুয়ের।
ফকিরহাট উপজেলার বেতাগা ইউনিয়নের মোঃ ইউনিুস আলী, পিলজং ইউনিয়নের জাহিদুল ইসলাম, সদর ইউনিয়নেরশিরিনা আক্তার কিসলু, নলদামৌভোগ ইউনিয়নের আমিনুর রশিদ মুক্তি।
মোল্লাহাট উপজেলার উদয়পুর ইউনিয়নের এম কে হায়দার মামুন, চুলখোনলায় মনোজ কুমার, কুলিয়া মিজানুর রহমান,গাওলা ইউনিয়নে শেখ রেজাইল কবির, কোদালিয়ায় শেখ রফিকুল ইসলাম, আটজুড়ি ইউনিয়নে মোঃ মনিরুজ্জামার মিয়া।
শরনখোলা উপজেলার সদর ইউনিয়নে খোন্তাকাটা ইউনিয়নে জাকির হোসেন খান মহিউদ্দিন, রায়েন্দা ইউনিয়নে আজমল হোসেন মুক্তা, সাইথখালী ইউনিয়নে মোজাম্মেল হোসেন নির্বাচিত হয়েছেন।

শেয়ার