বিশুদ্ধ পানি পেয়ে খুশি খালিয়া শেখপাড়াবাসী

খাজুরা (যশোর) প্রতিনিধি ॥ খালিয়া গ্রামের শেখপাড়ায় ৫০ পরিবারের বসবাস। এই মহল্লায় মৌলিক চাহিদার কোনটিরই কমতি নেই। তবে তাদের রয়েছে বড় একটি কষ্ট। তা হলো বিশুদ্ধ পানির অভাব। এখানকার সব অগভীর নলকূপের পানিতে মাত্রাতিরিক্ত আয়রন থাকায় তা পানের অযোগ্য ছিল। ফলে বিশুদ্ধ পানির জন্য ছুটতে হতো কর্মকারপাড়ায়। সম্প্রতি যশোরের খাজুরার খালিয়া গ্রামের শেখপাড়ায় তরুণ সমাজসেবক আলমগীর হোসেন একটি গভীর নলকূপ স্থাপন করে দিয়েছেন। এতে বিশুদ্ধ পানির কষ্ট লাঘব হয়েছে মহল্লাবাসীর।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, শেখপাড়ায় বিশুদ্ধ পানির অভাব ছিল। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে বারবার ধর্না দিয়েও একটি গভীর নলকূপ স্থাপন করা যায়নি। বিষয়টি আলমগীর হোসেনকে জানালে মাস খানেক আগে একটি গভীর নলকূপের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। প্রত্যাশিত বিশুদ্ধ পানি পেয়ে মহল্লাবাসী এখন বেজায় খুশি। দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হওয়ায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন শেখপাড়ার বাসিন্দারা।

রিয়া খাতুন নামে এক স্কুলছাত্রী জানায়, মহল্লার অগভীর নলকূপে আয়রনযুক্ত লাল পানি বের হতো। সেই পানি পান করায় রোগব্যধি লেগেই থাকতো। এখন গভীর নলকূপের নিরাপদ পানি ব্যবহারে রোগব্যধি কমেছে।
বৃদ্ধা রোকেয়া বেগম বলেন, ‘হাফ কিলোমিটার পথ হেঁটে বিশুদ্ধ পানি আনতে আমাকে কর্মকারপাড়ায় যেতে হতো। এখন আমার সেই কষ্ট দুর হয়েছে।’

জহুরপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য শরিফুল ইসলাম জানান, বরাদ্দ বেশি না থাকায় শেখপাড়ায় গভীর নলকূপ স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।

জানতে চাইলে তরুণ সমাজসেবক আলমগীর হোসেন বলেন, ‘সাধ্যানুযায়ী জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। আসন্ন ইউপি নির্বাচনে আমি নৌকা প্রতিক প্রত্যাশী। জনগণের সার্বিক সহযোগিতা ও পরামর্শকে কাজে লাগিয়ে জহুরপুর ইউনিয়নকে আধুনিক মডেল ইউনিয়ন গড়াই আমার ইচ্ছা।’

শেয়ার