সাম্প্রদায়িক নিপীড়নের শিকার ঝুমন দাসের মুক্তির দাবিতে যশোরে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ সুনামগঞ্জের শাল্লায় সাম্প্রদায়িক নিপীড়নের শিকার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলার আসামি ঝুমন দাসের মুক্তির দাবিতে যশোরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে শহরের দড়াটানায় যশোর জেলা উদীচীর উদ্যোগে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন যশোর সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি একরাম-উদ-দ্দৌলা, ওয়ার্কার্স পার্টির (মার্কসবাদী) সাধারণ সম্পাদক ইকবাল কবীর জাহিদ, উদীচীর উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট আবুল হোসেন, যশোর জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহমুদ হাসান বুলু, যশোর জেলা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাজেদ রহমান বকুল প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা জানান, হেফাজত ইসলামের নেতা মাওলানা মামুনুল হককে নিয়ে ঝুমন দাশ ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট দিয়েছেন এমন অভিযোগে গত ১৭ মার্চ শাল্লার নোয়াগাঁওয়ে হিন্দুধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হামলা চালানো হয়। এ সময় গ্রামের বাড়িঘর ও মন্দিরে ভাঙচুর চালানো হয়। অন্তত ৯০টি বাড়িতে হামলা করা হয় ওই সময়। এরপর ঝুমন দাশের বিরুদ্ধে গত ২৪ মার্চ শাল্লা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়। এই মামলায় এখনো তিনি কারাগারে রয়েছেন। তার পক্ষে একাধিকবার জামিনের জন্য আবেদন করা হয়। এ ধরনের ঘটনাকে স্বাধীন দেশে সংখ্যালঘুদের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ, একই সঙ্গে সংবিধান পরিপন্থী বলে উল্লেখ করেন নেতৃবৃন্দ। ঝুমন দাশসহ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার করা সবার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন। একই সঙ্গে মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়।

শেয়ার