৩০ সেপ্টেম্বর মমতার ভাগ্যনির্ধারণ

সমাজের কথা ডেস্ক ॥ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ভবানিপুর আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর। মুখ্যমন্ত্রী থাকতে হলে এই আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জয়লাভ করতেই হবে। শনিবার (০৩ সেপ্টেম্বর) উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ফলাফল জানানো হবে ৩ অক্টোবর। বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলাকালীন মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর ও সামশেরগঞ্জে প্রার্থী মারা যান। এ দুই আসনেও একই দিনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ফল ঘোষণাও হবে একই দিন। নির্বাচন কমিশন জানায়, উপ-নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি জারি হবে ৬ সেপ্টেম্বর। মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন ১৩ সেপ্টেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ১৪ সেপ্টেম্বর এবং প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৬ সেপ্টেম্বর।
সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা এবং পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের বিশেষ অনুরোধে ভবানিপুর আসনের উপনির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এক্ষেত্রে কমিশন বৈশ্বিক মহামারি করোনা সুরক্ষার যাবতীয় বিধিনিষেধ সাধ্যমত অনুসরণের চেষ্টা করবে বলেও জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে সব নির্বাচনে ভবানীপুর আসন থেকে মমতা ব্যানার্জিই নিজেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে থাকেন। তবে চলতি বছর পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতির চিত্র অন্যান্য বারের চেয়ে কিছুটা ভিন্ন হওয়ায় সর্বশেষ নির্বাচনে নিজ আসন ভবানীপুরের পরিবর্তে নন্দীগ্রাম থেকে নির্বাচনে দাঁড়ান তৃণমূল সভানেত্রী। যেখানে তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া হেভিওয়েট নেতা শুভেন্দু অধিকারী। নন্দীগ্রামকে ঘিরে নির্বাচনে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারীর মধ্যে এবং তাতে প্রায় ২০০০ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হন শুভেন্দু।

শেয়ার