মণিরামপুরে মাদ্রাসাছাত্র মামুন হত্যার ৮ আসামির আত্মসমর্পণ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের মণিরামপুরে মাদ্রাসা ছাত্র মামুন গাজী হত্যা মামলার ৮ আসামি আদালতে আত্মসমর্পণের পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সোমবার যশোর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গৌতম মল্লিক তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠান।

আত্মসমর্পণকারীরা হলেন, মণিরামপুর উপজেলার খেজালীপুর গ্রামের আব্দুল জলিল মোড়লের ছেলে সিরাজুল ইসলাম, ছানাউল্লাহ’র ছেলে আনিছুর রহমান, মোশারেফ হোসেনের ছেলে ফারুক হোসেন, মনু সরদারের ছেলে জসিম সরদার, দীন আলী দফাদারের দুই ছেলে ইসরাইল ও মিন্টু দফাদার, বক্কার বিশ্বাসের ছেলে ইজ্জত আলী এবং মৃত আনার গাজীর ছেলে আকতারুল ইসলাম।

মামলায় বলা হয়েছে, হত্যার শিকার মামুন গাজী স্থানীয় একটি আলিম মাদ্রাসায় লেখাপড়া করত। চলতি বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ১২টার মামুনকে জসিম সরদার মোবাইলে ফোনে খেজালীপুর গ্রামের মাঝেরপাড়া মসজিদের সামনে ডেকে নেয়। এরপর তাকে চোর অপবাদ দিয়ে রাতভর তাকে মারপিট ও নির্যাতন করা হয়। ধারালো অস্ত্র দিয়েও আঘাত করা হয়। সকালে খবর পেয়ে পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে মণিরামপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওইদিন দুপুর ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

হত্যার শিকার মামুনের বাবা মণিরামপুর উপজেলার খেজালীপুরের মশিয়ার গাজী উল্লেখিত আটজনসহ ১২জনকে অভিযুক্ত করে মণিরামপুর থানায় মামলা করেন। মামলায় অভিযুক্তরা উচ্চ আদালত থেকে জামিনে ছিলেন।

শেয়ার