নড়াইলে ‘ধর্ষণের শিকার’ শিশুর মৃত্যু, মামা-মামি আটক

সমাজের কথা ডেস্ক॥ নড়াইলে মামাবাড়ি বেড়াতে আসার পর ‘ধর্ষণের শিকার’ সাত বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার সকালে নড়াইল পৌরসভার ভওয়াখালী এলাকায় শিশুটির মৃত্যুর পর তার মামা ও মামিকে জিজ্ঞাগাবাদের জন্য আটক করা হয় বলে সদর থানার ওসি শওকত কবির জানান।

পুলিশ জানায়, শিশুর বাবা-মা ঢাকায় থাকেন। শিশুটি সম্প্রতি মামাবাড়ি বেড়াতে আসে। সকালে তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখান থেকে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ ঘটনা তদন্ত করে দেখছে।

হাসপাতালের চিকিৎসক হাফিজুর রহমান মুক্ত বলনে, শুক্রবার সকাল ৬টার দিকে শিশুটিকে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা। স্বজনরা জানান শিশুটির জ্বর হয়েছে। কিন্তু আলামত দেখে সন্দেহ হয়। তাৎক্ষণিকভাবে থানায় জানালে পুলিশ আসে।

“প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শিশুটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ধর্ষণের আলামত রয়েছে। হাসপাতালে আনার আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়।”

তবে মৃত্যুর কারণ বলতে পারেননি তিনি।

ওসি শওকত কবির বলেন, শিশুটির মামা হাফিজুর রহমান ও মামি তানিয়া খানমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে বিস্তারিত জানা যাবে। লাশ ময়নাতদন্তরে জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেন পাওয়ার পর মৃত্যুর কারণ জেনে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে পুলিশ।

শেয়ার