ঈদে বেনাপোল বন্দর টানা ৪ দিন বন্ধ থাকছে

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি ॥ মুসলিম সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব ঈদ উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত টানা চার দিন বেনাপোল স্থলবন্দর প্রতিবেশি দেশ ভারতের সাথে বন্ধ থাকছে আমদানি-রফতানি বাণিজ্যক কার্যক্রম। তবে এসময় যাদের দূতাবাদের ছাড়পত্র থাকবে সেসব পাসপোর্টধারী যাত্রীরা দুই দেশের মধ্যে যাতায়াত করতে পারবেন বলে জানা গেছে।

বেনাপোল বন্দরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক আব্দুল জলিল জানান, মঙ্গলবার ২০ জুলাই থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত ঈদের ছুটি । ২৪ জুলাই থেকে আবারও দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হবে। ছুটির মধ্যে বন্দরে যাতে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার থাকবে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি আহসান হাবিব জানান, ঈদ ছুটিতে বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি,রফতানি বন্ধ থাকলেও যারা ভ্রমন নিষেধাজ্ঞার আগে ভারতে অবস্থান করছিলেন তারা দূতাবাসের ছাড়পত্র নিয়ে ফিরছেন। এছাড়া ছাড়পত্র থাকলে বাংলাদেশিরাও যেতে পারবেন ভারতে।

শার্শা থানা ওসি বদরুল আলম ও বেনাপোল পোর্টথানা ওসি মামুন খান জানান, ঈদ ছুটিতে বাণিজ্যের সাথে সংশ্লিষ্টরা অনেকে গ্রামে যান ছুটি কাটাতে। এসময় তাদের প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে। তাই নিরাপত্তার সার্থে গুরুত্বপূর্ণ সড়কে পুলিশের টহল থাকবে।

জানা যায়, প্রতিদিন ভারত থেকে প্রায় সাড়ে ৪ শ ট্রাকে বিভিন্ন ধরনের পণ্য বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করে। প্রতিবছর ভারত থেকে আমদানির পরিমান প্রায় ৪০ হাজার মেঃটন বিভিন্ন ধরনের পণ্য। আমদানি পণ্য থেকে সরকারের প্রতিবছর প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আসে। এছাড়া প্রতিদিন বাংলাদেশি প্রায় দেড়শ ট্রাক পণ্য রফতানি হয় ভারতে। যা বছরে পরিমান প্রায় ৮ হাজার মেঃটন। বর্তমানে সরকারী আর সপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়া অনান্য দিনে ২৪ ঘন্টা চলে বন্দরের বাণিজ্যিক কার্যক্রম। আমদানি পণ্যের মধ্যে গার্মেন্টস, কেমিক্যাল, তুলা,মাছ, মেশিনারিজ ও শিশু খাদ্য উল্লেখ্য যোগ্য। আর রফতানি পণ্যের মধ্যে বেশির ভাগ পাট ও পাটজাত দ্রব্য । উল্লেখ্য রাজস্ব আয় ও বাণিজ্যিক দিক থেকে চট্রগ্রাম বন্দরের পরেই বেনাপোল বন্দরের অবস্থান।

শেয়ার