অনার্স-মাস্টার্স কোর্সে নিয়োগপ্রাপ্তদের এমপিওভুক্ত ও করোনাকালীন আর্থিক সহায়তা প্রদানের দাবি

বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশনের যশোর শাখা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বেসরকারি কলেজসমূহের অনার্স-মাস্টার্স কোর্সে বৈধভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের ‘জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা-২০১৮’ তে অন্তর্ভুক্ত এবং ননএমপিও শিক্ষকদের করোনাকালীন আর্থিক সহায়তা প্রদানের দাবিতে স্মরকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফেডারেশনের যশোর জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ। গতকাল রোববার দুপুরে যশোরের জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর এই দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। সংগঠনের আহ্বায়ক তরিকুল ইসলাম ও সদস্য জসিম উদ্দীনের স্বাক্ষরিত দুটি স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যলয়ের অধীনে সারাদেশের বেসরকারি কলেজসমূহে নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থী কৃত্বিত্বের সাথে বিভিন্ন বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স পাস করে দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রেখে চলেছে। বর্তমান সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপের অংশ হিসেবে দেশের প্রতিটি উপজেলায় একটি করে বেসরকারি এমপিওভুক্ত (অনার্স ও মাস্টার্সের শিক্ষকসহ) কলেজ জাতীয়করণের আওতায় পড়েছে যা আমাদের শিক্ষার ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নতি সাধিত হবে। কিন্তু দুঃখের বিষয় এই যে, অবশিষ্ট এমপিওভুক্ত কলেজসমূহের অনার্স ও মাস্টার্স কোর্সে অধ্যয়নরত লাখ লাখ শিক্ষার্থীর পাঠদানরত বৈধভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত ৫ হাজার ৫০০ জন শিক্ষককে এখনও এমপিওভুক্ত করা হয়নি। দীর্ঘদিন ধরে জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভূক্ত না করায় একদিকে যেমন এসকল শিক্ষক এমপিওভুক্ত হতে পারছে না, অন্যদিকে প্যাটার্ন বহির্ভূত শিক্ষক হিসেবে কলেজ থেকে পূর্ণস্কেলে বেতন দেওয়ার কথা থাকলেও ইতিপূর্বে কলেজভেদে দুই থেকে ১৪ হাজার টাকার এর বেশি কখনই দেওয়া হয়নি। বর্তমানে করোনা প্রাদূর্ভাবের কারণে অধিকাংশ কলেজগুলোতে বেতন বন্ধ রয়েছে। ফলে, উচ্চশিক্ষায় নিয়োজিত এ সকল শিক্ষক বর্তমানে অত্যন্ত মানবেতর জীবনযাপন করছেন। অথচ, একই বিশ^বিদ্যালয়ভুক্ত একই সিলেবাসে পাঠদান করিয়ে অনেক শিক্ষক ক্যাডারভুক্ত হয়েছেন। আবার একই প্রতিষ্ঠানে ইন্টারমিডিয়েট ও ডিগ্রি কোর্সের শিক্ষকরা এমপিওভুক্ত। দেশের অধিকাংশ আলিম-ফাজিল-কামিল ও কওমী শিক্ষকরা এমপিওভুক্ত হতে পারলেও আমরা অনার্স-মাস্টার্সের শিক্ষকরা আজও এমপিওভুক্ত হতে পারেনি যা অত্যন্ত দুঃখজনক। স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচিতে এসময় উপস্থিত ছিলেন জসিম উদ্দীন, ইকবাল হোসেন, রওশোন আরা, শরিফুল ইসলাম, মশিয়ুর রহমান, আন্জুমারা খাতুন, টিপু সুলতান, মফিজুর রহমান, রুমা পারভীন, ফিরোজ আহম্মেদ প্রমুখ।

শেয়ার