যশোরে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু

 গেল ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত আরো আরও ১৯১ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে গেল ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও করোনা উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে পাঁচজন করোনায় ও চারজন উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। এনিয়ে জেলায় মোট ১১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। একইসময় জেলায় নতুন করে আরও ১৯১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে জেলা সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন তথ্যটি নিশ্চিত করেন।

অপরদিকে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় যশোরে টানা তৃতীয় সপ্তাহের লকডাউন শুরু হয়েছে। বুধবার মধ্যরাত থেকে এ লকডাউন শুরু হয়।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের ফোকাল পারসন ডা. মো. রেহনেওয়াজ জানান, গেলে ২৪ ঘণ্টায় (অর্থাৎ বুধবার সকাল আটটা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল আটটা পর্যন্ত) যশোরে ৫১২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৯১ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জিনোম সেন্টারের ল্যাবে ১৬৮ জনের মধ্যে ৬১ জন, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজের ল্যাবে ১০২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫৫ জনের করোনা পজিটিভ ও খুলনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ল্যাবে সাতজনের করোনা পরীক্ষা করে সবকয়টি নেগেটিভ এসেছে। এছাড়া জেলায় করোনার ১০ জনের জিন এক্সপার্ট পরীক্ষা করে ৪ জনের এবং র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে ২২৫ জনের মধ্যে ৭১ জনের করোনা পজিটিভ এসেছে। আক্রান্তের হার শতকরা ৩৭ দশমিক ৩০ ভাগ। এছাড়া একই সময়ে করোনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন চার জন।
যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মো সায়েমুজ্জামান জানান, লকডাউন কার্যকর করতে এবার আরও কঠোর অবস্থানে নেমেছে প্রশাসন। ওষুধ ছাড়া সব নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান খোলা থাকবে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। এছাড়া পণ্যবাহী ট্রাক এবং অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া সব গণপরিবহণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

শেয়ার