শারীরিক উপস্থিতিতে শুরু হয়নি ॥ বিধিনিষেধের মধ্যে ভার্চুয়ালি চলবে যশোর আদালতের কার্যক্রম

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ শারীরিক উপস্থিতিতে মামলার কার্যক্রম শুরু হয়নি যশোর আদালতে। করোনার ভয়াবহতা আশংকাজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় কঠোর বিধি নিষেধ চলমান থাকায় এ কর্যক্রম সম্ভাব হয়নি বলে জানা গেছে। যশোর চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাহাদত হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ১৬ জুন থেকে ২৩ জুন রাত ১২ টা পর্যন্ত যশোর শহরের বেশকিছু স্থানে চলাচলে কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ থানায় ভার্চুয়াল প্রদ্ধতিতেই আদালতের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে জানানো হয়েছে।

হাইকোর্টের নির্দেশে সারাদেশের দেওয়ানি ও ফৌজদারি এবং ট্রাইব্যুনালসমূহে শারীরিক উপস্থিতিতে বিচার কার্যক্রম গতকাল রোববার থেকে শুরু হয়েছে। করোনার ভয়াবহতা বৃদ্ধিতে আদালতগুলো ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে এতদিন পরিচালনা হয়ে আসছিল। যশোরে করোনার ভয়াবহতা বৃদ্ধি পাওয়ায় কঠোর বিধিনিষেধ চলমান থাকায় শারীরিক উপস্থিতিতে আদালতে হাজির হয়ে মামলা পরিচালনা সম্ভব হয়নি।

যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভাকেট শাহানুর আলম শাহিন বলেন, উচ্চ আদালত সন্তোষজনক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কঠোর বিধিনিষেদের আওতামুক্ত এলাকার আদালতে স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। যশোর কঠোর বিধিনিষেধের আওতায় থাকায় শারীরিক উপস্থিতিতে আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়নি। ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে আদালতের কার্যক্রম চলছে। কঠোর বিধিনিষেধ শিথিল হলে শারীরিক উপস্থিতিতে আদালতের কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানিছেন তিনি।

শেয়ার