বাঘারপাড়ায় হঠাৎ করে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি, আক্রান্ত ৩৪

বাঘারপাড়া (যশোর) প্রতিনিধি॥ যশোরের বাঘারপাড়ায় হঠাৎ করে করোনা সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। প্রতিদিনই শনাক্ত হচ্ছে করোনা আক্রান্ত রোগী। উপজেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ১১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার প্রায় ৮৫.৫ শতাংশ। এ নিয়ে উপজেলার ৯ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় মোট ৩৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী রয়েছে।
হাসপাতালের করোনা ফোকাল পার্সন ও মেডিকেল অফিসার ডা. শাহ-আলম রুবেল জানিয়েছেন, উপজেলার নারিকেলবাড়িয়া ইউনিয়নে ৭ জন, দোহাকুলা ইউনিয়নে ৫ জন, দরাজহাট ইউনিয়নে ৩ জন, বাসুয়াড়ী ও রায়পুর ইউনিয়নে ২ জন করে ৪ জন, জহুরপুর, বন্দবিলা ও ধলগ্রাম ইউনিয়নে ১ জন করে ৩ জন, পৌর এলাকার ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডে ৩ জন করে ৬ জন, ৭ নং ওয়ার্ডে ১ জন ও যশোর সদরের লেবুতলা ইউনিয়নে ১ জনসহ মোট ৩৪ জন করোনায় আক্রান্ত রয়েছেন। এর মধ্যে ৩ জন রোগীকে এখনো শনাক্ত করা যায়নি। বৃহস্পতিবার ৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শরিফুল ইসলাম বলেন, মানুষ সচেতন না হওয়ায় ও সরকারি নির্দেশনা না মানায় হঠাৎ করে আবারো করোনা সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। ৩৪ জন আক্রান্তের মধ্যে ৪ জন হাসপাতালের আইসোলেশনে ও বাকীরা বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন। প্রতিদিনের শনাক্ত অনুযায়ী বাঘারপাড়ায় করোনা ভয়াবহ রূপ নিতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানিয়া আফরোজ জানিয়েছেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিয়মিত অভিযান চালানো হচ্ছে। মাস্ক পরাসহ নির্দেশনা মানার জন্য জনসাধারণকে সতর্ক করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, স্বাস্থ্য বিভাগের সাথে পরামর্শ করে লকডাউনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। করোনায় আক্রান্তদের কঠোর নজরদারিতে রাখা হচ্ছে।

শেয়ার