রাস্তা নিয়ে বিরোধ বেজপাড়ায় সন্ত্রাসী হামলা প্রতিপক্ষের ঘর ভাংচুর

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর শহরের বেজপাড়া মেইনরোডের একটি বাড়িতে হামলা চালিয়ে গুদামঘর ভাংচুর ও মালামাল ক্ষতিগ্রস্ত করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে একই এলাকার আব্দুল খালেকের নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রাস্তা নিয়ে বিরোধের জের ধরে এই হামলা চালানো হয়।
বাড়ির মালিক যশোর সরকারি সিটি কলেজের সাবেক শিক্ষক আব্দুর রশীদের মেয়ে নাহারিন সুলতানা অভিযোগ করেন, বুধবার বেলা তিনটার দিকে আব্দুল খালেকের নেতৃত্বে তাদের বাড়িতে হামলা চালানো হয়। এসময় তাদের বাড়ির পেছনের অংশে থাকা গুদামঘরটি ভাংচুর ও সেখানে থাকা মালামাল ক্ষতিগ্রস্ত করেন হামলাকারীরা।

তিনি জানান, তাদের মালিকানাধীন জমির পেছনে ছোট্ট একখ- জমি কিনেছেন আব্দুল খালেক। ক্রয়কৃত ওই জমি খালেকের বাস ভবন লাগোয়া হলেও তিনি আব্দুর রশীদের তিনতলা ভবন ভেঙ্গে সেখানে রাস্তা দেবার জন্য চাপ প্রয়োগ করেন। এনিয়ে তিনি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন দপ্তরে আবেদনও করেন। কিন্তু বাস্তবতা বিবেচনায় তার আবেদনে এ পর্যন্ত কোন কর্তৃপক্ষ সাড়া দেয়নি। এরপর তিনি পেশীশক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে অবৈধভাবে রাস্তা বের করার চেষ্টা করেন।

ভাংচুরের শিকার গুদামঘরটির ভাড়াটিয়া যশোর অ্যাসিড ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ও রহমান কেমিক্যাল ওয়ার্কসের মালিক আতিয়ার রহমান জানান, ভাংচুরের কারণে গুদামে থাকা তার লক্ষাধিক টাকার মালামাল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সৃষ্টি হয়েছে ঝূঁকিও।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভাংচুরকালে গুদামঘরে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চালায় হামলাকারীরা। তবে স্থানীয়দের বাঁধায় সেটা করতে পারেনি।

তবে অভিযুক্ত আব্দুল খালেক দাবি করেন, তার সদ্য ক্রয়কৃত জমিতে যাবার জন্য ৭ ফুট রাস্তা থাকার কথা। কিন্তু দীর্ঘদিনেও রাস্তাটি বুঝে পাচ্ছেন না তিনি। পৌরসভাসহ বিভিন্ন মহলে আবেদন করেও প্রতিকার পাননি তিনি। তাই নিজেই রাস্তা বের করে নেয়ার চেষ্টা করেছেন মাত্র।

শেয়ার