ফুলতলায় স্থাপনা উচ্ছেদ নোটিশের প্রতিবাদে বণিক কল্যাণ সোসাইটির সাংবাদিক সম্মেলন

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি ॥ ফুলতলা বাজার বণিক কল্যাণ সোসাইটির সভাপতি রবিন বসু বলেছেন, খুলনার ঐতিহ্যবাহি ফুলতলা বাজারে অভয়নগর ও ফুলতলা এলাকার প্রায় ৫ হাজার ব্যবসায়ী দীর্ঘদিন যাবত সুনামের সাথে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। যাদের মধ্যে অধিকাংশ দোকানদারের পৈত্রিকসুত্রে রেকর্ডভুক্ত জমি রয়েছে এবং অনেকেই রেকর্ডভুক্ত ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করে। এমতাবস্থায় গত ২৮ এপ্রিল ফুলতলা বাজারের আনুমানিক ৩’শ ব্যবসায়ীকে উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসের পক্ষ থেকে এক নোটিশ প্রদান করা হয়। ঐ চিঠিতে আগামী ৭ দিনের মধ্যে সরকারি খাস খতিয়ানের ও পেরিফেরীভুক্ত ৮.৮৬ একর জমির উপর স্থাপিত ভবন ও দোকানপাট সরিয়ে নেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয় করোনা মহামারীতে দেশজুড়ে ব্যবসা বাণিজ্যসহ সকল অর্থনৈতিক কার্যক্রমে স্থাবিরতা এসেছে। ব্যবসায়ীরা ব্যাংক, এনজিও, সমিতিসহ বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নিয়ে দায় দেনায় জর্জরিত। ফলে মন্দা ব্যবসা নিয়ে ব্যবসায়ী পরিবার অর্থাহারে অনাহারে দিন কাটাচ্ছে। ঠিক এমনই সময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে উচ্ছেদ নোটিশ মরার ওপর খাড়ার ঘা’র শামিল। অবিলম্বে ব্যবসায়ীদের ব্যক্তি মালিকানার জমি, খাস খতিয়ান, পেরিফেরী ও ভিপি তালিকা ভুক্ত থেকে অবমুক্ত না করা হলে আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষনা করা হবে।
সোমবার দুপুর ১২ টায় ফুলতলা বাজার বণিক কল্যাণ সোসাইটির কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ আসলাম খান, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল হক ফারাজী, সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক মনির হাসান টিটো, সহসভাপতি ও প্রেসক্লাবের একাংশের সভাপতি এস এম মোস্তাফিজুর রহমান, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাঈদ আলম মোড়ল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুব আলম মিঠু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক তারেক হোসেন নাইস, ক্রীড়া সম্পাদক খন্দকার রকিবুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক মোঃ আবুল খায়ের, কোষাধ্যক্ষ কবির জমাদ্দার, ব্যবসায়ী দুলাল অধিকারী, আঃ রহমান মিলন, রমেশ কুন্ডু, আনিস মোল্যা, জাহাঙ্গীর মোড়ল, সোসাইটির সদস্য মোঃ আল আমিন শেখ, আনিসুল ইসলাম মিন্টু, মোল্যা ইলিয়াস হোসেন, জুলহাস আহম্মেদ (জুলু), আঃ সাত্তার রানা জমাদ্দার, মোশাররফ হোসেন বিপ্লব প্রমুখ। অপরদিকে উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) রুলী বিশ^াস বলেন, ফুলতলা বাজারের খাস খতিয়ানভুক্ত ও পেরিফেরী জায়গায় অবৈধ দখলদারদেরকে উচ্ছেদের জন্য সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী এবং খুলনা জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশে নোটিশ জারি করা হয়েছে। তবে তারা সে নির্দেশনা অমান্য করায় এ ব্যাপারে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার