যশোর জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদকসহ চারজন আটক

দলীয় বিরোধে এমএম কলেজ ছাত্রদল নেতাকে ছুরিকাঘাত

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ দলের অভ্যন্তরীণ বিরোধে যশোর এমএম কলেজ শাখা ছাত্রদলের সদস্য সচিব নূর ইসলাম রুবেলকে ছুরিকাঘাতের মামলায় জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদকসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার দুপুরে শহরের মাইকপট্টি এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ও রেলগেট চোরমারা দিঘির দক্ষিণ পাড়ের আইনুল হকের ছেলে আনসারুল হক রানা, বারান্দী মোল্যাপাড়ার আশরাফ ড্রাইভারের ছেলে জুবায়ের হোসেন মারুফ, শংকরপুর গোলপাতা মসজিদ এলাকার মৃত আব্দুল গণির ছেলে আরিফুল ইসলাম আরিফ এবং জিলা স্কুল জামে মসজিদ এলাকার আব্দুল হামিদের ছেলে আনোয়ার পারভেজ।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, শহরের মুজিব সড়ক ষষ্ঠীতলার নওশের আলীর ছেলে নূর ইসলাম রুবেল এমএম কলেজে মাস্টার্সে লেখাপড়া করেন। তিনি এমএম শাখা ছাত্রদলের সদস্য সচিব। রাজনৈতিক পূর্ব বিরোধের কারণে আসামিরা রুবেলকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। এছাড়া প্রায় দুই সপ্তাহ আগে সিটি কলেজ শাখা ছাত্রদলের আহবায়ক মিজানুর রহমানের সাথে ছাত্রদল এমএম কলেজ শাখার সদস্য সচিব রুবেলের কথাকাটাকাটি হয়। এরই সূত্র ধরে মিজানের অনুসারী সন্ত্রাসীরা গত ২৮ এপ্রিল রাতে কয়েকটি মোটরসাইকেলযোগে হানা দেয় জিলা স্কুলে। যেখানে খেলাধুলা করে থাকেন রুবেল ও তার বন্ধুরা। সন্ত্রাসীরা রুবেলকে পেয়ে তাকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় রুবেলকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। এই মামলায় গত সোমবার দুপুরে ওই চার আসামিকে আটকের পর আদালতের মাধ্যমে জেলহাজহতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

শেয়ার