সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে নির্যাতনের পর বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ, স্বামী পলাতক

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি॥ সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ইন্দিরা গ্রামে স্ত্রীকে নির্যাতনের পর গালে বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। রবিবার রাতে সদর উপজেলার আবাদেরহাট ইন্দিরা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনার পর স্বামী পলাতক রয়েছে।

নিহত গৃহবধূর নাম শম্পা বেগম (২২)। তিনি সদর উপজেলার রাজনগর গ্রামের বাবলু সরদারের মেয়ে ও ইন্দ্রিরা গ্রামের হবি সরদারের স্ত্রী।

নিহত শম্পার চাচতো ভাই আবুল কাশেম জানান, শম্পার স্বামী হবি সরদার একজন চিহ্নিত মাদক চোরাকারবারি। দীর্ঘদিন ধরে হবির সাথে পারিবারিক কলহের কারণে তার চাচাতো বোন শম্পা বাবার বাড়িতে ছিলেন। রবিবার সকালে সে তার স্বামীর বাড়িতে যায়। সেখানে গেলে তার স্বামী তাকে নির্যাতনের পর জোর করে গালে বিষ ঢেলে হত্যা করে। পরে তার স্বামী হবি নিজে শম্পাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে, এ ঘটনার পর থেকে তার স্বামী হবি পলাতক রয়েছে।
তিনি আরো জানান, শম্পা ও হবির সংসারে রিয়াদ নামের পাঁচ বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।
সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্তাপ্ত কর্মকর্তা বুরহান উদ্দিন জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর তার মৃত্যুর আসল রহস্য জানা যাবে বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানান।

শেয়ার