যশোরে শতবর্ষী নারী ধর্ষণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে শত বছর বয়সী এক নারীকে ধর্ষণ এবং মারপিট করে গুরুতর আহত করার অভিযোগ উঠেছে। আহত বৃদ্ধার শরীরে অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বেলা পৌনে তিনটার দিকে যশোর শহরতলীর চাঁচড়া ইউনিয়নের সাড়াপোল কারিকরপাড়ায়। অভিযুক্ত রুবায়েত (২০) পাশের রুদ্রপুর গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে। পুলিশ তাকে আটক করেছে।

ভুক্তভোগী নারীর পুত্রবধূ বলেন, বুধবার দুপুরে আমার শাশুড়ি ঘরে শুয়ে ছিলেন। ওই সময় আমার ভাসুরের ছেলে ঘরের ভেতরে ঢুকে দেখে তার (বৃদ্ধার) বুকের ওপরে রুবাইত। এসময় আমার শাশুড়ির মাথা ও যৌনাঙ্গ থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছিল।’ ‘আমরা রুবাইতকে আটক করি এবং আমার শাশুড়িকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করি। পরে স্থানীয় মেম্বার মনজুর ও রুবাইতের চাচা এসে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়-বলছিলেন ওই নারী।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাক্তার আরিফ আহম্মেদ বলেন, গতকাল বিকেল পাঁচটার দিকে ফিজিক্যাল অ্যাসাল্ট হিসেবে শত বছর বয়সী এক নারীকে ভর্তি করা হয়। প্রথমে তাকে মহিলা সার্জারি ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। পরে ওই নারীকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে জানানো হলে বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টায় তাকে গাইনি ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। তাকে অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
আরএমও বলেন, বৃদ্ধাকে ধর্ষণ করা হয়েছে কি না তা পরীক্ষার জন্য আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষার রিপোর্ট এলে বিস্তারিত জানানো যাবে। জানতে চাইলে চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইনসপেক্টর রকিবুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে এসেছি। পুলিশ বিষয়টি গভীরভাবে খতিয়ে দেখছে। যশোর কোতোয়ালি থানার ইনসপেক্টর (তদন্ত) শেখ তাসমিম আহমেদ জানান, অভিযুক্ত রুবায়েতকে আটক করা হয়েছে।

শেয়ার