র‌্যাব ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পৃথক অভিযানে মাদকসহ তিনজন আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ র‌্যাব এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পৃথক অভিযানে তিনজন মাদক কারবারীকে আটক করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে প্রায় সাড়ে চার কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে। আটককৃতরা হলো, সদর উপজেলার পালবাড়ি এলাকার আব্দুস সালামের ছেলে হুমায়ুন কবীর, রূপদিয়া এলাকার জিরাট মুন্সিবাড়ির তরিকুল ইসলামের স্ত্রী রেহেনা বেগম, চৌগাছা উপজেলার ইন্দুপুর গ্রামের রমজান আলীর ছেলে ফয়জুর রহমান ও মাড়–য়া গ্রামের মৃত বাহার আলী মন্ডলের ছেলে লতা ফকির।

র‌্যাব সূত্র মতে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যশোর র‌্যাব ক্যাম্পের সদস্যরা গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে চৌগাছার চাঁদপুর গ্রামের জনৈক নূর মোহাম্মদের বাড়ির পাশে মাদক বিরোধী অভিযান চালায়। এসময় হুমায়ুন কবীর ও ফয়জুর রহমানকে ৩ কেজি ৮২০ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করা হয়। এছাড়া তাদের কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেলও উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় আটক দুইজনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে চৌগাছা থানায় মামলা করে র‌্যাব।

এছাড়া গত বুধবার রাত ৭টার দিকে র‌্যাবের আরেকটি অভিযানে চৌগাছা উপজেলার মাড়–য়া গ্রামের আজিজুল উলুম কওমি মাদ্রাসার পাশে লতা ফকিরের বাড়িতে মাদক বিরোধী অভিযান চালানো হয়। এসময় সেখান থেকে ৮২০ গ্রাম গাঁজা ও একটি ডিজিটাল স্কেলসহ লতা ফকিরকে আটক করা হয়। এই ঘটনায় তার বিরুদ্ধে চৌগাছা থানায় মামলা দেয়া হয়েছে।

বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার জিরাট মুন্সিপাড়ার রেহেনা বেগমের বাড়িতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের পরিদর্শক মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে অভিযানে তিনশ’ গ্রাম গাঁজাসহ রেহেনাকে আটক করা হয়। এই ব্যাপারে রেহেনার বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা দেয়া হয়েছে।

 

শেয়ার